আন্তর্জাতিক

ঋতুকালীন ছুটি পাবেন জোম্যাটোর নারী কর্মীরা

ঋতুস্রাবের সময় স্বাস্থ্যগত সমস্যা বিবেচনায় নারী কর্মীদের বছরে দশ দিনের ‘ঋতুকালীন ছুটি’ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ভারতের বৃহত্তম ফুড ডেলিভারি কোম্পানি জোম্যাটো। এই খবর জানিয়ে সিএনএন বলছে, ঋতুস্রাবকে ট্যাবু বিবেচনা করা একটি দেশের জন্য এমন পদক্ষেপ মাইলফলক।

Advertisement

প্রতি মাসে ঋতুস্রাব মেয়েদের জন্য স্বাভাবিক ও প্রাকৃতিক ঘটনা। অনেকেই পেটের ব্যথা ও যন্ত্রণায় ভোগেন। অনেককে বাধ্য হয়ে এ অবস্থাতেই কর্মক্ষেত্রে যেতে হয়। কাজ করাটা মুশকিল হয়ে পড়ে তাদের জন্য। এসব কারণেই জোম্যাটো তাদের নারী কর্মীদের জন্য ঋতুকালীন ছুটির ব্যবস্থা করলো।

জোম্যাটোর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দ্বীপেন্দর গোয়েল এক বিবৃতিতে এমন ঘোষণা দিয়ে জানান, প্রতি মাসে ঋতুস্রাবের কারণে নারী ও ট্রান্সজেন্ডার (হিজড়াদের) জন্য একদিন করে ছুটি বরাদ্দ থাকবে। কর্মীদের চিঠি দিয়ে এই ছুটি নিতে উৎসাহিত করেছেন তিনি।

চলতি বছরের শুরুতে উবার ফুড ডেলিভারির ব্যবসা কিনে নেওয়া জোম্যাটো ভারতের প্রথম সারির অন্যতম একটি কোম্পানি হিসেবে নারী কর্মীদের জন্য ঋতুকালীন ছুটির ব্যবস্থা করলো। ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদন অনুযায়ী, এর আগে মুষ্টিমেয় কিছু কোম্পানি এমন ছুটির গোড়াপত্তন করে। কর্মীদের পাঠানো তারবার্তায় জোম্যাটো প্রধান লিখেছেন, ‘আমরা বিশ্বাস, সত্য ও গ্রহণযোগ্যতার সংস্কৃতি তৈরি করতে চাই। ঋতুকালীন ছুটির আবেদনের ক্ষেত্রে কোনো লজ্জা কিংবা সংকোচ থাকা উচিত নয় কারও। আপনার যে ঋতুকাল চলছে এবং ছুটি নিতে চান, তা নির্দ্বিধায় অফিসকে জানানো উচিত’।

Advertisement

তিনি লিখেছেন, ‘এটা জীবনের অংশ। নারীরা কি অবস্থার মধ্য দিয়ে যান তা আমরা পুরোপুরি বুঝতে পারি না। তারা বিশ্রাম চাইলে তাদের ওপর আমাদের আস্থা রাখা উচিত। আমি জানি, ঋতুস্রাব অনেকের জন্য অত্যন্ত বেদনাদায়ক। আমরা জোম্যাটোতে সত্যিকারের সহযোগিতার সংস্কৃতি গড়ে তুলতে চাই।’

উপমহাদেশের সংস্কৃতিতে ঋতুস্রাব ট্যাবু। ঋতুস্রাব হওয়ার সময় নারীদেরকে এখানে অচ্ছুত ও অস্পৃশ্য অভিহিত করে রান্না করতে দেওয়া হয় না। কোনো কিছু স্পর্শ করতে পারে না তারা। বলা হয়, ঋতুকালীন নারীরা কোনো কিছু স্পর্শ করলে তা অপবিত্র হয়ে যায়। ফলে অনেকে এর কথা প্রকাশও করে না।

এসএ

Advertisement