খেলাধুলা

রাগে ফুঁসছেন আনুশকা, ধুয়ে দিলেন গাভাস্কারকে

বৃহস্পতিবার রাতটি ভুলেই যেতে চাইবেন রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর অধিনায়ক বিরাট কোহলি। প্রথম ফিল্ডিংয়ের সময় ছেড়েছেন দুইটি লোপ্পা ক্যাচ, পরে ব্যাটিংয়ে নেমে ফালতু শট খেলে আউট হয়েছেন মাত্র ১ রান করে। সবশেষ মরার ওপর খাঁড়ার ঘা হয়ে এসেছে, স্লো ওভার রেটের কারণে ১২ লাখ রুপি জরিমানা।

Advertisement

সবমিলিয়ে কিংস এলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে ম্যাচটি দুঃস্বপ্নের মতোই কেটেছে কোহলির। স্বাভাবিকভাবেই এমন পারফরম্যান্সের পর সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হয়েছেন কোহলি। ধারাভাষ্য থেকে শুরু করে সমর্থক পর্যন্ত সবাই রীতিমতো ধুয়ে দিয়েছেন কোহলিকে। ব্যতিক্রম ছিলেন না ম্যাচের হিন্দি ধারাভাষ্যে থাকা সুনিল গাভাস্কারও।

তবে কোহলির পারফরম্যান্সের কথা বলতে গিয়ে গাভাস্কার টেনে আনেন তার স্ত্রী আনুশকা শর্মার কথা। যা একদমই পছন্দ হয়নি বলিউড অভিনেত্রীর। সঙ্গে সঙ্গে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন আনুশকা, রেগে আগুন হয়ে তিনি প্রশ্ন করেছেন, কোহলির খেলায় বারবার কেনো তাকে টেনে আনা হয়।

কোহলি ব্যাটিংয়ে নামার পর ধারাভাষ্য কক্ষে গাভাস্কার বলেছিলেন, ‘কোহলি সবসময় ভালো করতে চায়। সে জানে যত প্র্যাকটিস করবে, তত ভালো হবে। করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন চলছিল ভারতে। তখন সে আনুশকা শর্মার বোলিংয়ের বিপক্ষে খেলেছে। এটা নিশ্চয়ই তাকে খুব একটা সাহায্য করবে না।’

Advertisement

Gavaskar said nothing wrong here. Who's the person who twisted his words and tweeted first? pic.twitter.com/GUwKESCGeX

— Abhijeet Dipke (@abhijeet_dipke) September 25, 2020

মুহূর্তের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায় ৩৪ সেকেন্ডের এই ধারাভাষ্য ক্লিপ। কোহলির পক্ষ নিয়ে সবাই দাবি জানায় গাভাস্কারকে বহিষ্কারের। যা নজর এড়ায়নি আনুশকার শর্মারও। উত্তর দিতে তিনি বেছে নেন ইন্সটাগ্রাম স্টোরি সেকশনকে। যেখানে বিশদ এক বার্তায় গাভাস্কারের মন্তব্যের বিরোধিতা করেছেন আনুশকা।

তিনি লিখেছেন, ‘মি. গাভাস্কার, আপনারব বার্তাটা খুবই কুরুচিপূর্ণ ছিল। তবে আমি খুশি হবো, যদি আপনি আমাকে জানান ঠিক কী কারণে এমন মন্তব্যের মাধ্যমে একজন স্বামীর খেলার মধ্যে তার স্ত্রীকে টেনে আনা হলো? আমি নিশ্চিত এত বছর ধরে আপনি সকল ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত জীবনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই ধারাভাষ্য করেছেন। আপনার কি মনে হয় না, সেই একইরকম শ্রদ্ধা আমার এবং কোহলির ক্ষেত্রেও দেখানো উচিৎ?’

‘আমি জানি, আমার স্বামীর গত রাতের পারফরম্যান্সের বিষয়ে বলার জন্য আপনার মাথায় আরও অনেক শব্দ কিংবা বাক্য রয়েছে। নাকি এর মধ্যে আমার নাম জড়ানোটাই শুধু যুক্তিযুক্ত? এখন ২০২০ সাল, তবু কোনোকিছু বদলায়নি। কবে আমাকে ক্রিকেটের মধ্যে টানা বন্ধ করা হবে? কবে এমন কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করা থামানো হবে?’

Advertisement

আনুশকার নিজের বার্তা শেষ করেন এভাবে, ‘শ্রদ্ধেয় মি. গাভাস্কার, ভদ্রলোকের খেলা ক্রিকেটে আপনি একজন কিংবদন্তি এবং আপনার নাম ওপরের দিকেই থাকে। আমি শুধু এটাই জানাতে চেয়েছি, যখন আপনি এসব শব্দ ব্যবহার করেছেন, তখন আমার কেমন লেগেছে!’

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরুতে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছিল গাভাস্কারের মন্তব্য। যেখানে তিনি বলেছেন, কোহলি আনুশকার বোলিংয়ের বিপক্ষে খেলেছে, সেখানে এটিকে তুলে ধরা হয় এমনভাবে, যেন তিনি বলেছেন, কোহলি আনুশকার বল নিয়ে খেলেছেন। ফলে একপ্রকার ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয় বিষয়টিকে ঘিরে। এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত গাভাস্কারের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

এসএএস/পিআর