খেলাধুলা

কাতার থেকে পয়েন্ট নিয়ে ফিরতে চান জামাল ভূঁইয়ারা

বাংলাদেশ ও কাতার-ফুটবলে দুই দেশের পার্থক্য আকাশ আর পাতাল। ফিফা র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের থেকে ১২৫ ধাপ এগিয়ে কাতার। মোটা দাগে লিখে দেয়া যায়, সুপার ফেভারিট হিসেবে শুক্রবার লাল সবুজ জার্সিধারীদের বিপক্ষে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের ম্যাচ খেলতে নামবে এশিয়ান চ্যাম্পিয়নরা।

Advertisement

কিন্তু বাংলাদেশ কি নামার আগেই হেরে যাবে? না, অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া সেটা চান না। লড়াই করতে চান ২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজকদের বিপক্ষে। শক্তিশালী দল হিসেবে কাতারকে সমীহ করলেও সেটা মাথা নত পর্যায়ে নিতে চান না অধিনায়ক। তিনি কাতারের মাটিতে তাদের রুখে দিয়ে এক পয়েন্ট নিয়ে দেশে ফিরতে চান।

দলের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে অধিনায়ক বলেছেন, ‘দলের অবস্থা অনেক ভালো এখন। পাঁচ সপ্তাহ আমরা কঠোর পরিশ্রম করেছি। চারটি ম্যাচ খেলেছি আমরা। তাই ফিটনেস লেভেল এখন খুবই ভালো। সবাই মোটামুটি ফিট আছে।’

কাতারে গিয়ে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। দুই ম্যাচেই ডিফেন্সের ভুলে গোল খেয়ে হেরেছে জামালরা। সেই ভুলগুলো সম্পর্কে বাংলাদেশ অধিনায়কের মত, ‘শুধু ডিফেন্ডার কিংবা মিডফিল্ডার না, খেলায় সবাই ভুল করতে পারে। স্ট্রাইকাররাও ভুল করতে পারে। আমাদের এ ম্যাচে ভুলের পরিমাণ কমাতে হবে। না হলে আবার একই সমস্যা হবে মাঠে। এ ভুলগুলো কিভাবে শোধরানো যায়, তা নিয়ে আমরা অনুশীলনে কাজ করেছি, পরস্পরের সঙ্গে কথা বলেছি।’

Advertisement

কাতারের বিপক্ষে বাংলাদেশ ডিফেন্স রক্ষা করে প্রতি আক্রমণনির্ভর খেলবে। তাতে ফরোয়ার্ড ও মিডফিল্ডারদেরও মাঝেমধ্যে ডিফেন্ড করতে হবে। এ প্রসঙ্গে জামাল ভূইঁয়া বলেন, ‘মাঠে সবাই একসাথে কাজ করবে। সবাই একসাথে ডিফেন্ড করবে, সবাই একসাথে অ্যাটাক করবে। আমি মনে করি, আমরা একটা টিম। আমরা শুধু ডিফেন্ডার, মিডফিল্ডার কিংবা স্ট্রাইকার না। আমরা সবাই মিলেই একসাথে কাজ করবো। আশা করি মাঠে ভালো একটা বাংলাদেশ দল দেখা যাবে।’

এশিয়ান চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে লক্ষ্যের কথা বলতে গিয়ে জামালের আত্মবিশ্বাস, ড্র করতে পারবেন তারা। বাংলাদেশ দলপতি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে অন্তত এক পয়েন্ট পাওয়া। যদিও কাতার অনেক শক্তিশালী দল। ওরা এশিয়া চ্যাম্পিয়ন। এক পয়েন্ট পেলে সেটা আমাদের জন্য দারুণ হবে। সেটা করতে হলে আমাদের ভালো করতে হবে। আশা করছি এক পয়েন্ট পাব, ইনশাআল্লাহ।’

আরআই/এমএমআর/জেআইএম

Advertisement