দেশজুড়ে

তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থীর কাছে ৫ হাজার ভোটে হারলো নৌকা

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে তৃতীয় লিঙ্গ সম্প্রদায়ের চেয়ারম্যান প্রার্থীর কাছে ভরাডুুবি হয়েছে নৌকার। উপজেলার ৬ নম্বর ত্রিলোচনপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বড় ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন তৃতীয় লিঙ্গের নজরুল ইসলাম ঋতু। তার প্রতীক ছিল আনারস। এ ইউনিয়নে নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন নজরুল ইসলাম ছানা ও হাতপাখা প্রতীকের মাহবুবুর রহমান।

Advertisement

নজরুল ইসলাম ঋতু ৯ হাজার ৫৬৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের নজরুল ইসলাম ছানা পেয়েছেন চার হাজার ৫১৭ ভোট।

বাঁধপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা অনিল কুমার বিশ্বাস জাগো নিউজকে এতথ্য নিশ্চিত করেন।

বিজয়ী চেয়ারম্যান ঋতু উপজেলার ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নের দাদপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের সন্তান। তার আরও তিন ভাই ও তিন বোন রয়েছে। তিন ভাই ঢাকায় থাকেন এবং বোনদের বিয়ে হয়েছে।

Advertisement

জন্মের পর তৃতীয় লিঙ্গের বিষয়টি প্রকাশ পাওয়ায় সাত বছর বয়সে গ্রাম ছেড়ে ঢাকা চলে যেতে বাধ্য হন ঋতু। এরপর সামান্য লেখাপড়া শিখতে পারলেও নানা প্রতিবন্ধকতায় প্রাথমিকের গণ্ডি পেরোতে পারেননি। ছোটবেলা থেকেই ঢাকার ডেমরা থানায় দলের গুরুমার (দলনেতা) কাছে বেড়ে ওঠা। এখন তার বয়স ৪৩ বছর। গুরুমার পরে দলের দেখভালের দায়িত্বটা পড়বে তার কাঁধেই।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঢাকায় থাকলেও পরিবারের টানে প্রায়ই বাড়িতে আসেন ঋতু। নিজের জমানো অর্থ দিয়ে প্রায় ১৫ বছর ধরে জন্মস্থান দাদপুর গ্রামসহ ইউনিয়নের উন্নয়নে আর্থিক সহযোগিতা করে আসছেন। এ পর্যন্ত তার এলাকায় দুটি মসজিদ করেছেন। এছাড়া স্থানীয়দের যেকোনো সমস্যায় এগিয়ে যান ঋতু।

বিজয়ী চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম ঋতু বলেন, আর দশজন স্বাভাবিক নারী-পুরুষের মতো না হলেও আমার কোনো দুঃখ নেই। আল্লাহ আমাকে সুস্থভাবে পৃথিবীতে বাঁচিয়ে রেখেছেন এতেই আমি সন্তুষ্ট। আমি এলাকার মানুষের কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই।

এর আগে গত উপজেলা নির্বাচনে পার্শ্ববর্তী উপজেলা কোটচাঁদপুরের পিংকি খাতুন নামের তৃতীয় লিঙ্গের একজন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তিনি দেশের মধ্যে তৃতীয় লিঙ্গের প্রথম জনপ্রতিনিধির স্বীকৃতি পান।

Advertisement

আব্দুল্লাহ আল মাসুদ/এসআর/জিকেএস