দেশজুড়ে

বাবা-ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা, ছেলে গ্রেফতার

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এক তরুণীকে (১৮) ধর্ষণের ঘটনায় বাবা-ছেলেসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত ছেলে মো. সোহেলকে (১৮) গ্রেফতার করেছে।

Advertisement

বুধবার (২৫ মে) বিকেলে চরজব্বর থানা পুলিশ চরওয়াপদা ইউনিয়ন থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে। এর আগে দুপুরে নির্যাতিতার বাবা বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণের মামলা করেন।

গ্রেফতার মো. সোহেল উপজেলার চরওয়াপদা ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব চরজব্বর গ্রামের মো. হানিফ মিয়ার ছেলে।

চরজব্বর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মিধন মিয়া মামলা ও গ্রেফতারের বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

Advertisement

তিনি বলেন, বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ এনে ওই তরুণীর বাবা আসামি সোহেল ও তার বাবা হানিফ মিয়াসহ এলাকার আরও তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। পরে অভিযান চালিয়ে আসামি সোহেলকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, কয়েক মাস আগে ভুক্তভোগীর নানার ঘর নির্মাণের কাজ করতে যান সোহেল। এতে তরুণীর সঙ্গে সোহেলের পরিচয় হলে এক পর্যায়ে দুজনের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরপর বিয়ের প্রলোভনে ভুক্তভোগীকে বিভিন্নস্থানে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন সোহেল।

সর্বশেষ গত ১৬ মে রাত ১০টার দিকে একটি পরিত্যক্ত বাড়ির বাগানে ডেকে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে তিনি। ঘটনাটি জানাজানি হলে পরের দিন আদালতের মাধ্যমে বিয়ে করার কথা বলে সোহেল পালিয়ে যান।

বিষয়টি গত ২২ মে গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে অভিযুক্ত সোহেলদের বাড়িতে যান নির্যাতিত তরুণীর বাবা। তখন সালিশের নামে কালক্ষেপণ করে সোহেলের বাবাসহ অপর আসামিরা তাদের হুমকি-ধমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেন।

Advertisement

চরজব্বর থানার ডিউটি কর্মকর্তা সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) ফারজানা জাগো নিউজকে বলেন, বৃহস্পতিবার ভুক্তভোগী কিশোরীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে এবং আসামিকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

ইকবাল হোসেন মজনু/এমআরআর/জিকেএস