নানাবাড়ি বেড়াতে গিয়ে প্রাণ গেল শিশুর

জেলা প্রতিনিধি শেরপুর
প্রকাশিত: ০১:১৩ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯
নানাবাড়ি বেড়াতে গিয়ে প্রাণ গেল শিশুর

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার বরইকুচি গ্রামে নানাবাড়ি বেড়াতে গিয়ে নিখোঁজের ১৮ ঘণ্টা পর পুকুর থেকে খাতুন আনিকা (৬) নামে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে বাড়ীর পাশের একটি পুকুর থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা।

নিহত আমেনা খাতুন আনিকা শেরপুর সদরের চরশেরপুর গ্রামের আমির আলীর মেয়ে।

শ্রীবরদীর সিঙ্গাবরুনা ইউনিয়নের স্থানীয় মেম্বার শফিকুল ইসলাম চিনি জানান, বৃহস্পতিবার শিশু আনিকা তার মায়ের সঙ্গে বরইকুচি গ্রামের নানা আব্দুল আউয়ালের বাড়িতে বেড়াতে আসে। দুপুরের পর বাড়ির উঠানে খেলতে গিয়ে শিশুটি নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাকে না পেয়ে এলাকায় মাইকিং করা হয়। একপর্যায়ে বাড়ির পাশে দুটি বড় বড় পুকুর থাকায় স্বজনরা সেই পুকুরের পানিতে ডুবে যাওয়ার সন্দেহ করে পুকুর দুটিতে নেমে অনুসন্ধান চালালেও কোনো সন্ধান মেলেনি।

জামালপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মো. নুরুজ্জামান জানান, শুক্রবার ভোরে ডুবুরি দলকে খবর দেয়া হলে ডুবুরি রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে পুকুর দুটিতে অনুসন্ধান চালানো হয়। প্রায় চার ঘণ্টা চেষ্টার পর সকাল ১০টার দিকে একটি পুকুর থেকে শিশু আনিকার মরদেহ উদ্ধার করে ডুবুরিরা।

হাকিম বাবুল/আরএআর/এমএস

সর্বশেষ - দেশজুড়ে

জাগো নিউজে সর্বশেষ

জাগো নিউজে জনপ্রিয়