EN
  1. Home/
  2. আন্তর্জাতিক

কোয়ারেন্টাইন থেকে পালানো দম্পতিকে আটক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | প্রকাশিত: ০১:৪৩ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০২১

নেদারল্যান্ডসের একটি হাসপাতাল থেকে পালানো এক দম্পতিকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ডাচ পুলিশ। তারা কোভিড-কোয়ারেন্টাইন হোটেল থেকে পালিয়েছিলেন। রোববার সন্ধ্যায় আমস্টারডামের স্কিফল বিমানবন্দরে বিমানের ফ্লাইট ছাড়ার কিছুক্ষণ আগেই তাদের আটক করা হয়।

ওই দম্পতির পরিচয় প্রকাশ করেনি পুলিশ। তবে পরবর্তীতে তাদেরকে দেশটির স্বাস্থ্য সেবা কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

গত সপ্তাহে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে আসা দুটি ফ্লাইটে করে আমস্টারডামে পৌঁছানো যাত্রীদের মধ্যে ১৩ জনের দেহে করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। এরা প্রত্যেকেই করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন।

ওই দুই ফ্লাইটে আসা ৬১ জনের দেহে করোনার উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। তবে ওই দম্পতিও এই ৬১ জনের মধ্যে রয়েছেন কিনা সে বিষয়টি নিশ্চিত নয়।

স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের কেনেমারল্যান্ড অঞ্চলের একটি হোটেলের কোয়ারেন্টাইন থেকে পালাতে সক্ষম হন ওই দম্পতি। দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে আসা লোকজন ওই এলাকাতেই সেলফ আইসোলেশনে আছেন।

দেশটির একটি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ডাচ কোয়ারেন্টাইন নীতি ভঙ্গের কারণে ওই দম্পতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে।

এদিকে রোববার সকাল থেকেই নেদারল্যান্ডসে আংশিক লকডাউন কার্যকর হয়েছে। দেশটিতে করোনা সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। এরই মধ্যে সর্বশেষ অতি সংক্রামক ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের আতঙ্কে কর্তৃপক্ষ দেশজুড়ে আংশিক লকডাউন জারি করতে বাধ্য হয়েছে।

কমপক্ষে আগামী তিন সপ্তাহ সব ধরনের সাংস্কৃতিক ভেন্যু বিশেষ করে ক্যাফে, জাদুঘর এবং সিনেমা হল অবশ্যই বন্ধ থাকবে। হাসপাতালগুলোতে রোগীর চাপ যেন না বাড়ে এবং পরিস্থিতি যেন নিয়ন্ত্রণে থাকে সেজন্যই কর্তৃপক্ষ এমন কঠোর পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে।

যেসব ক্ষেত্রে সম্ভব সেখানে লোকজনকে বাড়িতে বসেই কাজ করার জন্য উৎসাহিত করা হচ্ছে। তবে দেশটিতে স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস এখনও চলছে।

ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটে চলতি মাসের শুরুতেই দোকান-পাট, খেলাধুলা এবং ক্যাটারিংয়ের ওপর বিধিনিষেধ ঘোষণা করেন। নেদারল্যান্ডসে ইন্টেন্সিভ কেয়ারে শয্যা সংকট রয়েছে। অনেক হাসপাতালেই অপারেশন বাতিল করা হচ্ছে এবং প্রায় প্রতি সপ্তাহেই শত শত মানুষ প্রাণ হারাচ্ছে।

আংশিক লকডাউন ঘোষণার পর হাজার হাজার বিক্ষোভকারী রাজপথে নেমে এসেছে। অপরদিকে বিক্ষোভকারীদের হটাতে জল কামান নিক্ষেপ করেছে পুলিশ। দেশটিতে ২২ হাজারের বেশি নতুন সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এরই মধ্যে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

টিটিএন/জেআইএম