EN
  1. Home/
  2. জাতীয়

করোনায় আক্রান্ত ভোক্তা অধিদফতরের শাহরিয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ১১:২৯ পিএম, ১৩ মে ২০২০

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের আলোচিত কর্মকর্তা মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক হিসেবে কর্মরত আছেন।

বুধবার (১৩ মে) তার করোনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ এসেছে। রাতে তিনি নিজেই জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গত পরশু রাত থেকে শরীর সামান্য ব্যথা ছিল। গতকাল একটু জ্বর-সর্দি থাকায় আজ সকালে স্কয়ার হাসপাতালে টেস্ট করি। পরে বিকেলে হাসপাতাল থেকে ফোনে জানানো হয় রেজাল্ট পজিটিভ এসেছে। আগামীকাল সকালে অফিসিয়াল রিপোর্ট দেয়া হবে। এখন হোম কোয়ারেন্টাইনে আছি।

মহামা‌রি করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে দেশে সাধারণ ছুটি চলছে। বেশিরভাগ সেবা প্রতিষ্ঠান যখন বন্ধ রয়েছে। ঠিক তখনই করোনার স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণ ও সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখতে প্রতিদিন মাঠে অভিযান করছেন ভোক্তা অধিদফতরের এ উপ-পরিচালক। চলমান করোনা পরিস্থিতিতে সৃষ্ট সংকট ও রোজা ও আসন্ন ঈদুল ফিতরে চাল, ডাল, তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম স্থিতিশীল, সরবারহ নিশ্চিতে কাজ করছেন। সঙ্গে অধিদফতরের একঝাঁক তরুণ কর্মকর্তাদের ভোক্তা সেবায় উৎসাহ দিচ্ছেন।

রোজা রেখে রোদ বৃষ্টির মধ্যে প্রতিদিনই ঘুরছেন পাইকারি খুচরা বাজার ও বিভিন্ন আড়তে। অভিযান করছেন বিভিন্ন সুপারশপেও। ব্যবসায়ীদের সতর্ক করার পাশাপাশি জরিমানা করেছেন বিভিন্ন প্রতারক ও কারসাজিকারীকে। প্রতিদিন বিভিন্ন বাজারে ঘুরে হ্যান্ডমাইকে ক্রেতা-বিক্রেতা‌দের করোনার বিষয়ে সচেতন করেছেন। স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে মাস্ক, হ্যান্ডগ্লাভস ও হাতধোয়া এবং স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন। ভোক্তাদের পাশে থাকা সময়ের এ সাহসী যোদ্ধা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

এদিকে মহামারি করোনায় প্রতিদিনই দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। বুধবার (১৩ মে) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, কোভিড-১৯ এ গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৯ জন প্রাণ হারিয়েছেন। ভাইরাসটি হানা দেয়ার পর দেশে এটিই এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। এ নিয়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৬৯-এ। একই সময়ে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন আরও এক হাজার ১৬২ জন। এটিও একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৭ হাজার ৮২২ জনে।

এসআই/বিএ