EN
  1. Home/
  2. জাতীয়

মাস্ক পরেই পর্যটকদের সমুদ্রবিলাস

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশিত: ০৮:৫৯ এএম, ২৩ নভেম্বর ২০২০

ক‌রোনাভাইরা‌স সৃষ্ট মহামারির সংক্রমণ রো‌ধে পর্যটন নগরী কক্সবাজা‌রের সমুদ্র সৈক‌তে প্র‌য়োজনীয় স্বাস্থ্য‌বি‌ধি মেনে চলার ব্যাপা‌রে স‌র্বোচ্চ সতর্ক অবস্থান নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। ‘নো মাস্ক নো সা‌র্ভিস’-এ নী‌তির প্র‌য়োগ নি‌শ্চিত কর‌তে সমুদ্র সৈক‌তের বি‌ভিন্ন পয়েন্টে মাইক‌িং করে সবাইকে মাস্ক প‌রার জন্য বলছে ট্যুরিস্ট পু‌লিশ ও স্থানীয় প্রশাস‌ন। তাই সৈক‌তে বেড়াতে যাওয়া পর্যটক‌দের প্রায় সবাই মু‌খে মাস্ক পরেই সমুদ্র দেখতে যা‌চ্ছেন।

‌রোববার (২২ নভেম্বর) বি‌কে‌লে সৈকতে গিয়ে দেখা গে‌ছে, লাবণী ও কলাতলীসহ সৈক‌তের একাধিক প‌য়ে‌ন্টে হ্যান্ডমাইকে বলা হ‌চ্ছে, ‘বি‌শ্বের বি‌ভিন্ন দে‌শে ক‌রোনাভাইরাস সংক্রম‌ণের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হ‌য়ে‌ছে। আমা‌দের দে‌শেও তা শুরু হ‌তে পা‌রে। তাই ঘুর‌তে আসা পর্যটক‌দের স্বাস্থ্য‌বি‌ধি মে‌নে সৈক‌তে যাওয়ার জন্য মু‌খে মাস্ক পর‌তে হ‌বে।’

jagonews24

প্রশাসনের এমন নির্দেশনা মেনে চলছেন প্রায় সব পর্যটক। স্থানীয় ব্যবসায়ীরাও মাস্ক প‌রেই বেচা‌কেনা কর‌ছেন।

রাজধানীর যাত্রাবা‌ড়ি থে‌কে সপরিবারে সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে যাওয়া ব্যবসায়ী নাজমুল হো‌সেন ব‌লেন, ‘কক্সবাজা‌রে স্বাস্থ্য‌বি‌ধি মে‌নে চলার ব্যাপা‌রে স্থানীয় প্রশাস‌নের তৎপরতা প্রশংসনীয়। তারা পর্যটকসহ সবার মু‌খে মাস্ক প‌রাসহ প্র‌য়োজনীয় সতর্কতা নি‌শ্চিত কর‌তে ব্যাপক তৎপর। তাছাড়া শহ‌রের হো‌টেল-রেস্টু‌রেন্টসহ সব জায়গায় স্বাস্থ্য‌বি‌ধি মে‌নে চলায় অধিকাংশ মানুষই আন্ত‌রিক।’

jagonews24

স্থানীয় একা‌ধিক আবা‌সিক হো‌টেল মা‌লিক জানান, ক‌রোনা ভী‌তি সত্ত্বেও বিপুল সংখ্যক পর্যটকের সমাগম হয়েছে কক্সবাজারে। বি‌শেষ করে সপ্তাহের শেষভাগে অর্থাৎ বৃহস্প‌তি, শুক্র ও শ‌নিবা‌রে বেশি পর্যট‌কের আগমন হয় কক্সবাজারে।

এমইউ/এসএস/জেআইএম