EN
  1. Home/
  2. জাতীয়

কখন বলা যাবে, সেকেন্ড ওয়েভ শুরু হয়েছে?

মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল | প্রকাশিত: ১১:৩১ এএম, ০১ ডিসেম্বর ২০২০

দেশে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। একমাস আগেও করোনার নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ছিল ১০ শতাংশ থেকে ১২ শতাংশ। কিন্তু গত এক সপ্তাহের মধ্যেই শনাক্তের হার বৃদ্ধি পেয়ে ১৩ থেকে ১৪ শতাংশ এবং সর্বশেষ সোমবার (৩০ নভেম্বর) শনাক্তের হার বৃদ্ধি পেয়ে ১৬ দশমিক ৪৩ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

এছাড়া প্রতিদিনই বাড়ছে করোনায় মৃতের সংখ্যা। এদিকে করোনায় আক্রান্তদের শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন শারীরিক সমস্যার কারণে মানুষ ছুটছে সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে। করোনা রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে বেগ পেতে হচ্ছে অনেকের। আইসিইউসহ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় অধিকাংশ রোগীর মৃত্যু হচ্ছে।

গত এক সপ্তাহ ধরে শনাক্তের হার ও মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ মানুষের মনে প্রশ্ন করোনার সেকেন্ড ওয়েভ (দ্বিতীয় ঢেউ) কি শুরু হয়েছে? আর শুরু না হয়ে থাকলে কখন বলা হবে যে, সেকেন্ড ওয়েভ শুরু হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তার কাছে সেকেন্ড ওয়েভ শুরু হয়েছে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রথম ধাপে যখন করোনার ব্যাপক সংক্রমণ শুরু হয় তখন গড়ে প্রতিদিন ২০ থেকে ২২ শতাংশ নতুন রোগী শনাক্ত হতো। গত চার সপ্তাহ ধরে করোনা শনাক্তের হার ১০ থেকে ১২ শতাংশ থাকলেও গত সপ্তাহ থেকে শনাক্ত ও মৃতের হার বাড়ছে।

তিনি বলেন, আগামী বেশ কিছুদিন যদি করোনা শনাক্তের হার বৃদ্ধি পায়, টানা কয়েকদিন যদি নতুন রোগী শনাক্তের হার ১৬ থেকে ১৮ শতাংশ বজায় থাকে তাহলে সেকেন্ড ওয়েভ চলছে বলে ধরে নেয়া যাবে।

পরিসংখ্যান বিশ্লেষণে দেখা যায়, চলতি বছরের ১ নভেম্বর থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত সময়ে একদিনে সর্বোচ্চ ২৫ জন ও সর্বনিম্ন ১৩ জনের মৃত্যুর রেকর্ড রয়েছে। কিন্তু গত ১৫ দিন অর্থাৎ ১৬ থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সময়ে একদিনে সর্বোচ্চ ৩৯ জন ও সর্বনিম্ন ১৭ জনের মৃত্যু হয়।

এমইউ/এআরএ/বিএ/জেআইএম