কান উৎসবে সোনালি ফিস কাট গাউনে মুগ্ধ করলেন ঐশ্বরিয়া

প্রকাশিত: ০৩:১৫ পিএম, ২০ মে ২০১৯, আপডেট: ০৩:১৫ পিএম, ২০ মে ২০১৯

কান উৎসব ২০১৯ এর ঝলমলে আসরে সোনালি ফিস কাট গাউনে দর্শকদের মুগ্ধ করলেন বলিউড তারকা ও সাবেক বিশ্ব সুন্দরী ঐশ্বরিয়া রায়। এবার তার সঙ্গী মেয়ে আরাধ্যা।

২০০২ সালে প্রথমবার কানের রেড কার্পেটে দেখা গিয়েছিল ঐশ্বর্যকে। তারপর থেকে এখন পর্যন্ত কোনোবারই হতাশ করেননি ঐশ্বরিয়া। নিজস্ব স্টাইলে রেড কার্পেটে হেঁটে বরাবরই মুগ্ধ করেছেন সকলকে। কান চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৯-এর রেড কার্পেটেও ফের একবার মুগ্ধ করলেন প্রাক্তন বিশ্ব সুন্দরী।

২০০২ সালে প্রথমবার কানের রেড কার্পেটে দেখা গিয়েছিল ঐশ্বর্যকে। তারপর থেকে এখন পর্যন্ত কোনোবারই হতাশ করেননি ঐশ্বরিয়া। নিজস্ব স্টাইলে রেড কার্পেটে হেঁটে বরাবরই মুগ্ধ করেছেন সকলকে। কান চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৯-এর রেড কার্পেটেও ফের একবার মুগ্ধ করলেন প্রাক্তন বিশ্ব সুন্দরী।

ফ্রান্সের ফ্রেঞ্চ রিভিয়েরায় আয়োজিত কান চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৯ এর রেড কার্পেট ঐশ্বর্য পা রাখতেই ঝলসে উঠল অসংখ্য ক্যমেরা, নিমেষে ক্যামেরাবন্দি হলেন তিনি। এদিন মেটালিক ফিসকাট গাউনে ঐশ্বরিয়া সুন্দরী যেন আরও বেশি অপরূপা।

ফ্রান্সের ফ্রেঞ্চ রিভিয়েরায় আয়োজিত কান চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৯ এর রেড কার্পেট ঐশ্বর্য পা রাখতেই ঝলসে উঠল অসংখ্য ক্যমেরা, নিমেষে ক্যামেরাবন্দি হলেন তিনি। এদিন মেটালিক ফিসকাট গাউনে ঐশ্বরিয়া সুন্দরী যেন আরও বেশি অপরূপা।

ঐশ্বয়িরা এই গাউনের ডিজাইন করেছেন মিডল-ইস্টের দেশ লেবানন-এর ডিজাইনার জিন লুইস সাবাজি।

ঐশ্বয়িরা এই গাউনের ডিজাইন করেছেন মিডল-ইস্টের দেশ লেবানন-এর ডিজাইনার জিন লুইস সাবাজি।

ঐশ্বরিয়ার এই গাউনটি ডিজাইন করতে সময় লেগেছেন ২০০ ঘণ্টা। ১৮মিটার চামড়া দিয়ে তৈরি করা হয়েছে গাউনটি। ‘ভোগ’ ম্যাগাজিনকে দেওয়া সাক্ষৎাকারে এমনটাই জানিয়েছেন ডিজাইনার জ্যঁ-লুই সাবাজি।

ঐশ্বরিয়ার এই গাউনটি ডিজাইন করতে সময় লেগেছেন ২০০ ঘণ্টা। ১৮মিটার চামড়া দিয়ে তৈরি করা হয়েছে গাউনটি। ‘ভোগ’ ম্যাগাজিনকে দেওয়া সাক্ষৎাকারে এমনটাই জানিয়েছেন ডিজাইনার জ্যঁ-লুই সাবাজি।

এদিন পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে হালকা মেকআপ ও সোনালি আই স্যাডো ও কালো মাশকারাতে সেজেছিলেন ঐশ্বরিয়া। সঙ্গে নজর কাড়ল তার ম্যাট ফিনিস লিপস্টিক ও স্ট্রেট চুল।

এদিন পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে হালকা মেকআপ ও সোনালি আই স্যাডো ও কালো মাশকারাতে সেজেছিলেন ঐশ্বরিয়া। সঙ্গে নজর কাড়ল তার ম্যাট ফিনিস লিপস্টিক ও স্ট্রেট চুল।

ডিজাইনার জ্যঁ-লুই সাবাজির কথায়, ‘রেড কার্পেটে আসল রানিই হলেন ঐশ্বরিয়া। তার জন্য কান-এর রেড কার্পেটের পোশাক তৈরি করতে পেরে আমি ভীষণই খুশি। এই পোশাক একমাত্র তাকেই মানায়।’

ডিজাইনার জ্যঁ-লুই সাবাজির কথায়, ‘রেড কার্পেটে আসল রানিই হলেন ঐশ্বরিয়া। তার জন্য কান-এর রেড কার্পেটের পোশাক তৈরি করতে পেরে আমি ভীষণই খুশি। এই পোশাক একমাত্র তাকেই মানায়।’

মায়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে হালকা হলুদ রঙের পোশাকে নজর কাড়ল ঐশ্বর্য রায়ের ৭ বছরের মেয়ে আরাধ্যা। হোটেল মার্টিনেজ থেকে মায়ের সঙ্গেই কান-এর রেড কার্পেটে পৌঁছায় ছোট্ট আরাধ্যা।

মায়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে হালকা হলুদ রঙের পোশাকে নজর কাড়ল ঐশ্বর্য রায়ের ৭ বছরের মেয়ে আরাধ্যা। হোটেল মার্টিনেজ থেকে মায়ের সঙ্গেই কান-এর রেড কার্পেটে পৌঁছায় ছোট্ট আরাধ্যা।

আরও