তিন পরাজয়ের পর সুপার লিগে জয় পেল মোহামেডান

ক্রীড়া প্রতিবেদক প্রকাশিত: ০৪:৩৩ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৯
তিন পরাজয়ের পর সুপার লিগে জয় পেল মোহামেডান

সুপার লিগের টিকিট পেতে প্রথম পর্বের একদম শেষ ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছিল। সেরা ছয়ের লড়াইয়ে নেমেও ধুঁকতে হয়েছে প্রথম তিন ম্যাচ। অবশেষে চতুর্থ ম্যাচে এসে সুপার লিগে জয়ের দেখা পেল ঢাকার ঐতিহ্যবাহী ক্লাব মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সুপার লিগের চতুর্থ রাউন্ডে শক্তিশালী প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবকে পাত্তাই দেয়নি মোহামেডান। বল হাতে এনামুল বিজয়-অলক কাপালিদের ১৭৪ রানে অলআউট করার পর ব্যাট হাতে এ রান মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে ৯০ বল বাকি থাকতেই জিতে নিয়েছে রকিবুল হাসানের দল।

চলতি লিগে দুর্দান্ত ব্যাট করতে থাকা রকিবুল হাসান এ ম্যাচেও খেলেছেন ৫২ রানের অপরাজিত ইনিংস। সবমিলিয়ে ১৫ ম্যাচে ১ সেঞ্চুরি ও ৮ হাফসেঞ্চুরিতে লিগের যৌথ সর্বোচ্চ ৭৫৯ রান করলেন রকিবুল। ৬৮ বলে ৭ চারের মারে ৫২ রানের ইনিংস খেলে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়েই মাঠ ছাড়েন মোহামেডান অধিনায়ক।

Raqibul

তার আগে রান তাড়ার কাজটি সহজ করে দেন ওপেনার আব্দুল মজিদ। ইনিংসের ২৩তম ওভারে ১১৯ রানের মাথায় আউট হওয়ার আগে ৭১ বলে ৫৪ রান করেন তিনি। এছাড়া লিটন দাস ২০ বলে ৩২, ইরফান শুক্কুর ১৫ বলে ১১ এবং তুষার ইমরান ৩৬ বলে ২২ রান করে অপরাজিত থাকেন।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বাঁহাতি স্পিনার সাকলাইন সজীবের ঘূর্ণিজালে ধরা পড়ে প্রাইম ব্যাংক। মাত্র ৪৯ রানেই সাজঘরে ফিরে যান ৫ ব্যাটসম্যান। অধিনায়ক এনামুল হক বিজয় আউট হন ১০ রানে এছাড়া। রুবেল মিয়া ১০, আলআমিন জুনিয়র ৪, নাইম হাসান ৪ এবং নাজমুল হোসেন মিলন করেন ৩ রান।

শেষদিকে অলক কাপালি ৪৩, নাহিদুল ইসলাম ২৬, মনির হোসেন ২২ এবং আব্দুর রাজ্জাক ২২ রান করলে ১৭৪ রানের সংগ্রহ পায় প্রাইম ব্যাংক। ইনিংসের ৪৬ বল বাকি থাকতেই অলআউট হয় তারা।

মোহামেডানের পক্ষে বল হাতে ৪ উইকেট নেন সাকলাইন সজীব। এছাড়া সোহাগ গাজী ৩, রাহাতুল ফেরদৌস ২ এবং শফিউল ইসলাম নেন ১ উইকেট।

এসএএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :

এই বিভাগের সর্বশেষ