জোকস

আজকের কৌতুক : একরাতের জন্য ১০ হাজার!

কৌতুক এক : একরাতের জন্য ১০ হাজার!

লাইব্রেরিতে পড়তে গিয়ে টিটু একটি মেয়েকে বললো, ‘আমি কি আপনার পাশের চেয়ারে বসতে পারি?’

মেয়েটি চিৎকার করে বললো, ‘আমার সাথে রাত কাটাতে চাও! এত্ত বড় সাহস!’

লাইব্রেরির সবাই টিটুর দিকে কটমট চোখে তাকালো! টিটু সাংঘাতিক লজ্জা পেলো। ঘণ্টাখানেক পর মেয়েটি টিটুর কানে কানে গিয়ে বললো, ‘আমি সাইকোলজির স্টুডেন্ট। কীভাবে মানুষকে লজ্জা দিতে হয় সেটা খুব ভালো করে জানি!’ টিটু তখন চিৎকার করে বললো, ‘একরাতের জন্য ১০ হাজার টাকা চাও? এটা অনেক বেশি!’

লাইব্রেরির সব মানুষ বিস্মিত চোখে মেয়েটির দিকে তাকালো। মেয়েটা লজ্জায় অজ্ঞান হয়ে গেল! জ্ঞান ফিরতেই টিটু তার কানে কানে গিয়ে বললো, ‘আমি আইনের ছাত্র। কীভাবে বিনা অপরাধে কাউকে দোষী বানাতে হয়, সেটা খুব ভালো করে জানি!’

আরও পড়ুন: আজকের কৌতুক: শুধু তোমাকেই ভালোবাসি

****

কৌতুক দুই : ডিভোর্স’ কেন হলো!

শ্যামল সেন নামের এক ভদ্রলোকের স্ত্রীর ৩৫তম জন্মদিন ছিল, কিন্তু তিনি ব্যবসার কাজে শহরের বাইরে থাকায় ২৫টি গোলাপ ফুল অর্ডার দেন আর স্ত্রীকে হোম ডেলিভারী করেন। ফুলের সাথে একটি চিঠি লিখলেন, ‘প্রিয়তমা, আমার চোখে তোমার বয়স যত মনে হয় ততগুলো ফুল পাঠালাম।’

এদিকে, ওই ফুলওয়ালা নতুন দোকান খোলায় সবাইকে একটি ফুলের সাথে আর একটি ফুল ফ্রি দিচ্ছিল, সেনবাবুর স্ত্রীকেও ২৫টিতে ২৫টি ফ্রি ফুল একসাথে বেঁধে বাড়িতে ডেলিভারি দিয়ে এলো।

আজ পর্যন্ত সেনবাবু বুঝতেই পারলেন না যে তার ‘ডিভোর্স’ কেন হলো!

আরও পড়ুন : আজকের কৌতুক: তোমাকে রানীর মতো রাখবো

****

কৌতুক তিন : হবু পুত্রবধূ

এক পিচ্চি মেয়ে দোকানদারকে বলছে-

মেয়ে: আচ্ছা আঙ্কেল আমি যখন বড় হবো তখন আপনি কি আপনার ছেলের সাথে আমার বিয়ে দেবেন?

দোকানদার হেসে বললো, হ্যাঁ মামনি অবশ্যই দেবো।

মেয়ে: ঠিক আছে, তাহলে আপনার হবু পুত্রবধূকে ফ্রি দুইটা আইসক্রিম দিন!

এইচএন/এমএস