দেশজুড়ে

সুসজ্জিত গাড়িতে বাড়ি গেলেন অবসরপ্রাপ্ত আট পুলিশ

চাঁদপুর জেলার অবসরজনিত বিদায়ী পুলিশ সদস্যদের আনুষ্ঠানিক বিদায় সংবর্ধনায় ব্যতিক্রমী আয়োজন করলো জেলা পুলিশ। সদ্য অবসরপ্রাপ্ত এমন ৮ সদস্যকে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে সুসজ্জিত গাড়িতে করে কর্মস্থল থেকে নিজ বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ।

Advertisement

রোববার (০৫ ডিসেম্বর) দুপুরে চাঁদপুর পুলিশ লাইন্সে অবসরজনিত পুলিশ সদস্যদের বিদায় সংবর্ধনার এ আয়োজন করা হয়। আর এমন আয়োজনে ভীষণ খুশি ও আনন্দিত বিদায়ী সদস্যরা।

তাদেরকে সংবর্ধনা প্রদানের উদ্দেশ্যে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে একটি পিকআপ ভ্যান ও একটি মাইক্রোবাসকে ফুলে ফুলে সুসজ্জিত করা হয়। এছাড়াও প্রত্যেককে ফুল দিয়ে স্বাগতম জানান পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ।

সদ্য অবসরজনিত বিদায় সংবর্ধনা প্রাপ্ত সদস্যরা হলেন- পুলিশ পরিদর্শক (শহর ও যানবাহন) মো. মোখলেসুর রহমান ও মো. আলমগীর মিয়া, এসআই মো. বোরহান উদ্দিন মিয়াজী, কনস্টেবল মো. জাহাঙ্গীর আলম, মো. মাহবুব আলম শেখ, মোহাম্মদ হানিফ পাটোয়ারী, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরকার ও মো. কবির হোসেন।

Advertisement

বিদায়কালে চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ সদ্যবিদায়ী সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন, জীবনের বড় একটি অংশ অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ ও কষ্টকর এবং একইসঙ্গে দায়িত্বশীল পদে চাকরি করে বিদায় নিয়েছেন। আমরা আপনাদের অবদান কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করি।

ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে চাঁদপুরের পুলিশ সুপার বলেন, ১৮ থেকে ১৯ বছর বয়সে অনেক পুলিশ সদস্যের চাকরি জীবন শুরু হয়। তারপর কারও ৪০ বছর কারও ৪২ বছর দায়িত্ব পালন করতে করতে কেটে যায়।

তিনি বলেন, আমি মনে করি তারা পুলিশের জন্য তাদের সারা জীবন দিয়ে দেন। সেখানে পুলিশের পক্ষ থেকেও তাদের জন্য একটু সম্মান দেওয়া উচিত। শেষ দিনের এই সম্মানটুকু তারা হয়তো আজীবন মনে রাখবেন। কারণ তারা ভাববেন, যে ডিপার্টমেন্টে জীবন কেটেছে তাদের কাছ থেকে সম্মানের সঙ্গে বিদায় নিতে পেরেছি। এসব বিষয় চিন্তা করে তাদের জন্য এমন আয়োজন করা হয়।

নজরুল ইসলাম আতিক/কেএসআর

Advertisement