EN
  1. Home/
  2. দেশজুড়ে

সমুদ্রবিলাসে এক হাসপাতালের ৭ চিকিৎসক!

জেলা প্রতিনিধি | শরীয়তপুর | প্রকাশিত: ১০:৩০ এএম, ২৩ নভেম্বর ২০২০

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দশ চিকিৎসকের মধ্যে সাতজন চিকিৎসকই ছুটি না নিয়ে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে ভ্রমণে গিয়েছেন। এতে ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসা সেবা।

এ ব্যাপারে গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. হাফিজুর রহমান বলেন, ৫০ শয্যা বিশিষ্ট গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আমিসহ মোট ১০ জন চিকিৎসক রয়েছি। শনিবার (২১ নভেম্বর) হঠাৎ করে সাত চিকিৎসককে একসঙ্গে কর্মস্থলে অনুপস্থিত দেখা যায়। পরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি তারা ছুটি না নিয়েই শনিবার সকালে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে ভ্রমণে গেছেন। কবে নাগাদ ফিরবেন তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, ছুটি না নিয়ে হঠাৎ সাত চিকিৎসক ভ্রমণে যাওয়ায় চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হচ্ছে। বিষয়টি আমি জেলা সিভিল সার্জনকে জানিয়েছি। সিভিল সার্জন তাদের শোকজ করার নির্দেশ দিয়েছেন। নির্দেশ অনুযায়ী ওই সাত চিকিৎসককে শোকজ করা হবে।

ভ্রমণে যাওয়া সাত চিকিৎসক হলেন- হাসপাতালের আরএমও ডা. সিকদার আফ্রিদি রিজভী, মেডিকেল অফিসার ডা. বদরুন্নাহার তানিজম, ডা. তানিয়া, ডা. আল আমিন সিকদার, ডা. ফজলে রাব্বি, ডা. সিফাত তাসনিম ও ডা. আব্দুল্লাহ তাহের।

ছুটি না নিয়েই কুয়াকাটা ভ্রমণে যাওয়া ডা. সিকদার আফ্রিদি রিজভী মুঠোফোনে জাগো নিউজকে বলেন, গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. হাফিজুর রহমান স্যারকে মৌখিকভাবে বলে আমরা সাত চিকিৎসক কুয়াকাটা গিয়েছিলাম। তবে লিখিতভাবে ছুটি নেয়া হয়নি। রোববার রাতে কর্মস্থলে পৌঁছানোর কথা জানান তিনি।

শরীয়তপুরের সিভিল সার্জন ডা. এসএম আব্দুল্লাহ আল মুরাদ জাগো নিউজকে বলেন, কোনো চিকিৎসককে ছুটি নিতে হলে লিখিতভাবে নিতে হবে। কিন্তু লিখিতভাবে ছুটি না নিয়ে সাত চিকিৎসক ভ্রমণে গিয়েছেন। জানতে পেরে গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে বলেছি তাদের শোকজ করতে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ছগির হোসেন/এফএ/জেআইএম