মুহাম্মদ ফরিদ হাসানের গুচ্ছ কবিতা

মুহাম্মদ ফরিদ হাসান প্রকাশিত: ১২:৪৬ পিএম, ২২ ডিসেম্বর ২০১৮
মুহাম্মদ ফরিদ হাসানের গুচ্ছ কবিতা

বদল

আমি তোমাকে খুনি বলিনি
আত্মাকে কেটেকুটে বদলাতে চেয়েছি পৃথিবী
কিছুই বদলায়নি, মায়ের কান্নাও নয়;
শুধু হরণ হয়েছে সময় এবং আমি।

নারী ও পুরুষ

হাঁটতে হাঁটতে পুরুষগুলো ক্রমশ ছোট হচ্ছে
নারীরা বড় হচ্ছে জ্যামিতিক হারে
বিপরীত প্রান্ত থেকে নারীরা ছুটছিলো পুরুষ ভালোবাসবে বলে
বিচ্ছিন্ন পৃথিবী থেকে পুরুষরাও ছুটছিলো নারী ভালোবাসবে বলে
অবশেষে দখিনের জলাভূমি উত্তরের মেয়েলি জোছনায় দাঁড়ালে
নারীরা মিলিত হওয়ার পূর্বেই
পুরুষগুলো ক্ষুদ্র হতে হতে জীবন থেকে নিশ্চিহ্ন হলো!

শয়তান

শয়তান খুঁজেছি দুর্গম আফ্রিকা, হিমালয় চূড়ায়-
প্রেয়সীর প্রতারণা, নিষ্ঠুর জল্লাদ চোখে-
কোথাও নেই, কোথাও পাইনি তাকে...

সমুদ্র বেষ্টন পেরিয়ে ঘরে এসেছি আসামীর মতো
আয়নার বুকে হঠাৎই ক্লান্ত চোখ পড়ে
দেখি, ভেতরে থেকে আমার মুখ বরাবর তাকিয়ে আছে এক নিমগ্ন শয়তান!

রক্তের দোয়াত

ধলপ্রহরে তোমার মনের রঙগুলো একবার ছুঁতে চেয়েছিলাম
তোমাকে না জানিয়ে আঁকবো কিছু জ্যোৎস্না
আধভাঙ্গা কলম নিয়ে এঁকেছি ফুল, প্রজাপতি হবো-

অথচ রঙের দোয়াতে তোমার রক্ত, শুকনো দাগ!

এসইউ/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :

এই বিভাগের সর্বশেষ