যৌন হয়রানির অভিযোগ করায় নার্সকে প্রাণনাশের হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশিত: ০৬:২৬ পিএম, ০৮ এপ্রিল ২০১৯
যৌন হয়রানির অভিযোগ করায় নার্সকে প্রাণনাশের হুমকি

রাজধানীর উত্তরার কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের পরিচালক ডা. আমিরুল হাসানের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন ভুক্তভোগী এক নারী নার্সিং অফিসার। হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ককে যৌন হয়রানির বিষয়টি অবহিত করায় প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন বলে ভুক্তভোগীর অভিযোগ।

গত ২৭ মার্চ উত্তরা পূর্ব থানায় যৌন হয়রানি ও প্রাণনাশের হুমকির কারণে নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন ভুক্তভোগী নার্স।

উত্তরা ৬ নং সেক্টরের ঈশা খাঁ এভিনিউতে অবস্থিত হাসপাতালটির পরিচালকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির বিষয়টি জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন তিনি।

লিখিত অভিযোগপত্র ও জিডিতে ভুক্তভোগী নারী নার্সিং অফিসার জানিয়েছেন, ২০১৮ সালের ৪ নভেম্বর হাসপাতালের পরিচালক হিসেবে যোগ দেন ডা. আমিরুল হাসান। এরপর থেকে বিভিন্নভাবে তাকে রুমে ডেকে নিয়ে যৌন হয়রানির চেষ্টা করেন। দেশের বাইরে ঘুরতে নিয়ে যাওয়া, ঢাকায় বাড়ি তৈরি করে দেওয়ার প্রলোভন দেখান। স্বামীকে তালাক দিয়ে তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখান। তার কথামতো না চললে চাকরি বাঁচাতে পারবেন না বলেও হুমকি-ধামকি দিতেন।

ওই নারী অভিযোগ করেন, সর্বশেষ গত ২৮ ফেব্রুয়ারি দুপুর আড়াইটার দিকে পরিচালক ভুক্তভোগী নারীকে তার রুমে ডেকে নেন এবং যৌন হয়রানির চেষ্টা করেন। তখন ওই নারী জোর প্রতিবাদ করে বাইরে বেরিয়ে আসেন বলে অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর বরাবর লিখিত অভিযোগে ওই নার্স উল্লেখ করেন, দুই সন্তানের কথা ভেবে আমি আত্মহত্যার চেষ্টা করেও পারিনি। যৌন হয়রানির বিষয়টি হাসপাতালের সেনা তত্ত্বাবধায়ককে অবহিত করি। কিন্তু বিষয়টি জেনে যাবার পর তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেন হাসপাতালের পরিচালক ডা. আমিরুল হাসান।

যৌন হয়রানি প্রাণনাশের হুমকি বিয়য়ে সুবিচার প্রত্যাশা করেন স্বাস্থ্য অধিদফতর মহাপরিচালক বরাবর লেখা অভিযোগে।

এ ব্যাপারে উত্তরা পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নূরে আলম সিদ্দিক জানান, থানায় সাধারণ ডায়েরি নথিভুক্ত হয়েছে। অভিযোগ তদন্তাধীন।

জেইউ/এসএইচএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :

এই বিভাগের সর্বশেষ