EN
  1. Home/
  2. রাজনীতি

বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করায় বিএনপির নিন্দা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ০৯:৩৭ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০২০

রাজধানীর একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বিএনপি। শনিবার (২৮ নভেম্বর) দলের সহ-দফতর সম্পাদক মুনির হোসেন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়।

এতে বলা হয়, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক বিবৃতিতে রাজধানীর মোগলটুলী এলাকায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) কর্তৃক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, গত অক্টোবর মাসে ডিএসসিসি স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের নামে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়টির নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিলে তাৎক্ষণিকভাবে বিএনপি ও এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছিল। আমরা এ ধরনের প্রতিহিংসামূলক পদক্ষেপ থেকে সরে আসার জন্য সিটি করপোরেশনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলাম। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য, সিটি করপোরেশন কারো কোনো দাবি ও আহ্বানের প্রতি কর্ণপাত না করে ‘শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়’ নাম পরিবর্তন করে ‘পুরান মোগলটুলী উচ্চ বিদ্যালয়’ নামকরণ করেছে।

বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, মহান স্বাধীনতার ঘোষণাসহ মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ, গৌরবোজ্জ্বল ও সাহসী ভূমিকা এবং পরবর্তীতে আধুনিক ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় যুগান্তকারী নেতৃত্ব ও অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ২০০৬ সালে ঢাকা সিটি করপোরেশনের তৎকালীন মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকা করপোরেশনের উদ্যোগে ‘শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়’ প্রতিষ্ঠা করেন এবং একই বছর ২৫ মার্চ উদ্বোধন করেছিলেন।

কিন্তু বর্তমান সরকার ইতিহাস বিকৃতি ও প্রতিহিংসার রাজনীতির বশবর্তী হয়ে ডিএসসিসি শহীদ জিয়ার নামে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের ন্যক্কারজনক সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করছে। নগরবাসীর নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি না হওয়ায়, মেয়র ও কাউন্সিলরা নগরবাসীর সেবা না করে নাম পরিবর্তনের মতো ন্যক্কারজনক কাজে ব্যস্ত রয়েছে। নগরবাসীর নির্বাচিত প্রতিনিধি হলে তারা এ ধরনের হিংসাত্মক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকতে পারতেন না।

বিবৃতিতে তিনি ডিএসসিসি কর্তৃক শহীদ জিয়ার নামে প্রতিষ্ঠিত উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, বিগত ১২ বছর শত চেষ্টা করে ফ্যাসিবাদী শাসকগোষ্ঠী জনগণের হৃদয় থেকে শহীদ জিয়ার নাম মুছে ফেলতে পারেনি, কখনো পারবেও না। জিয়াউর রহমান গণমানুষের নেতা, দেশের সফল রাষ্ট্রনায়ক। গণমানুষের কল্যাণে তার রাজনীতি ও কর্মসূচির জন্য তিনি গণমানুষের হৃদয়ের মণিকোঠায় স্থান করে নিয়েছেন। তার নাম যারাই মুছে ফেলার চেষ্টা করবে, তারাই ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত হবে। জনগণের মন থেকে তারা চিরস্থায়ীভাবে মুছে যাবে।

কেএইচ/এআরএ/এমকেএইচ