দেশজুড়ে

পাবনায় শিশু বিক্রির সময় আটক ৪

ঢাকা থেকে ২২ দিনের একটি শিশুকে চুরি করে পাবনায় বিক্রির সময় পুলিশ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার সন্ধ্যায় পাবনা সদর উপজেলার হেমায়েতপুর ইউনিয়নের কিসমত প্রতাপপুর গ্রাম থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় শিশু বিক্রির সঙ্গে জড়িত সন্দেহে হেলাল উদ্দিন (৩২) তার স্ত্রী আমেনা (২৫), মুন্নী বেগম (৪৫) এবং স্বর্ণা বেগম (৩৭) নামের চারজনকে আটক করা হয়।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুল হক জানান, কিসমত প্রতাপপুরের হেলাল উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে ঢাকায় শ্রমিকের কাজ করেন। গতকাল মঙ্গলবার তিনি ঢাকা থেকে ২২ দিনের একটি শিশুকে তার গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসেন। বুধবার বিকেলে শিশুটিকে স্বর্ণা বেগমের কাছে হস্তান্তরের সময় এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে তারা শিশুসহ চারজনকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পরে সন্ধ্যায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদেরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস জানান, পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে হেলাল জানিয়েছেন, শিশুটির মা-বাবা পাবনায় পৌঁছে দেয়ার জন্য শিশুটিকে তার কাছে দিয়েছিল। কিন্তু তিনি শিশুটির মা-বাবার নাম-পরিচয় জানেন না বলে জানান। তার আচরণ সন্দেহজনক মনে হওয়ায় সদর থানা পুলিশের একটি দল বুধবার রাতে তাকে নিয়ে ঢাকায় রওনা দেয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও জানান, শিশু চুরি বা বিক্রির ঘটনা নিশ্চিত হওয়ার জন্যই পাবনা জেলা পুলিশের একটি দল ঢাকায় রওনা হয়েছে। সেখান থেকে চুরির ঘটনা নিশ্চিত হওয়া গেলে পুলিশ হেফাজতে থাকা এই চারজনকে গ্রেফতার দেখানো হবে।

এ কে জামান/এমবিআর/এমএস