আন্তর্জাতিক

স্পেনের কাতালোনিয়ায় ফের দুই লক্ষাধিক মানুষ লকডাউন

দ্বিতীয় দফায় দ্রুত করোনার সংক্রমণ বিস্তার লাভ করায় স্পেনের কাতালোনিয়া অঞ্চলের আঞ্চলিক সরকার দুই লাখেরও বেশি বাসিন্দার একটি এলাকা ফের লকডাউন করে দিয়েছে। একসময় প্রাদুর্ভাবের কেন্দ্র থাকলেও করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসা স্পেনে এ ঘটনা ফের উদ্বেগ তৈরি করেছে।

প্রেসিডেন্ট কুইম তোরা বলছেন, সেগরিয়া থেকে কেউ বের হতে পারবে না এবং বাইরে থেকেও কেউ সেখানে প্রবেশ করতে পারবে না। সেগরিয়া হলো দেশটির প্রসিদ্ধ শহর বার্সেলোনার পশ্চিমে অবস্থিত একটি কৃষিভিত্তিক এলাকা। ওই এলাকার মধ্যে লেলিডিয়া শহর অবস্থিত।

মন্ত্রিসভার সদস্য এবং সিভিল ডিফেন্স সার্ভিসের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর প্রেসিডেন্ট তোরা ফের লকডাউন নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত নেন। তিনি বলেন, ‌‌‘আমরা নিজেদের সুরক্ষা এবং মহামারিটিকে নিয়ন্ত্রণে আনার জন্যই ফের এমন পদক্ষেপ নিচ্ছি।

শনিবার থেকেই ওই এলাকায় লকডাউন সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা বলবৎ হয়েছে। তবে বাসিন্দা নন এমন যারা সেখানে এখন অবস্থান করছেন তাদেরকে শর্তসাপেক্ষে এলাকা ত্যাগ করার অনুমতি দেওয়া হয়। প্রসঙ্গত, স্পেনে করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত অঞ্চলগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো কাতালোনিয়া।

স্থানীয় সরকারের অধীনে পরিচালিত সংবাদ সংস্থার বরাতে বিবিসি জানিয়েছে, শুক্রবার পর্যন্ত সাড়ে সাত লাখেরও বেশি বাসিন্দার অঞ্চল কাতালোনিয়ায় কোভিড-১৯ পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত মানুষের সংখ্যা ৭২ হাজার ৮৬০ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ১২ হাজার ৫৮৬ জন মারা গেছেন।

গতদিনে আরও দুই মৃত্যু ছাড়াও নতুন করে ৪০০ জনকে করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন সেখানে। এরমধ্যে সেগরিয়ার লেলিডিয়া শহরেই শনাক্ত হয়েছেন ১৫৫ জন। এদিকে গোটা স্পেনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণহানির সংখ্যা ২৮ হাজার ৩৮৫ জন।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সম্প্রতি মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ অনেকটা কমে যাওয়ায় স্পেন যুক্তরাজ্য ছাড়াও ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত (ইইউ) দেশের জন্য নিজেদের সীমান্ত খুলে দেয়।

এসএ