আ.লীগ এমপিকে শোকজ, সদস্যপদ বাতিলের সিদ্ধান্ত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুষ্টিয়া
প্রকাশিত: ০৩:২২ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০১৭

কুষ্টিয়ায় জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় কুষ্টিয়া-৪ (খোকসা-কুমারখালী) আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় এমপি আবদুর রউফ’র সদস্যপদ বাতিলের জন্য শোকজ করা হয়েছে।

সেই সঙ্গে কারণ দর্শানোর জন্য তাকে ১৫ দিনের সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে কারণ দর্শানো নোটিশের জবাব দেয়া না হলে তার সদস্যপদ বাতিল করা হবে মর্মে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। শনিবার কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের ওয়ার্কিং কমিটির বর্ধিত সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এ সিন্ধান্ত নেয়া হয়।

দীর্ঘদিন পর শনিবার বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় জেলা আওয়ামী লীগের ওয়ার্কিং কমিটির এ বর্ধিত সভা।

সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সদর উদ্দিন খান। সভায় কমিটির ৭১ জন সদস্যের মধ্যে ৬৯ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দিন খান বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠিত হওয়ার পর এ পর্যন্ত ১০টি সভা অনুষ্ঠিত হলেও এমপি আবদুর রউফ কোনো সভায় উপস্থিত হননি। সাংগঠনিক নিয়মানুযায়ী কোনো সদস্য পর পর ৩টি সভায় ইচ্ছাকৃতভাবে অনুপস্থিত থাকলে তার সদস্যপদ বাতিল হয়ে যাবে। আজকের এ সভায় উপস্থিত সব সদস্য সর্বসম্মতিক্রমে সেই সিদ্ধান্ত নেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী বলেন, সাংগঠনিক নিয়মনীতি মেনেই এমপি রউফের সদস্যপদ বাতিলের সিন্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে কেন্দ্রে এ সিদ্ধান্ত পাঠানোর আগে আমরা তাকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দিয়ে চিঠি দেব।

এদিকে, একই সভায় কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোমিনুর রহমান মমিজকে নতুন করে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্যপদ প্রদান করা হয়েছে। ইতিপূর্বে তাকে অনৈতিককাজের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।

এ ব্যাপারে কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসনের সংসদ সদস্য আব্দুর রউফ বলেন, আমাকে কোনো মিটিংয়ের চিঠি দেয়া হয় না। এমনকি ফোনেও জানানো হয় না। আজকে যেখানে প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে সর্বস্তরের মানুষ উৎসবে মাতোয়ারা ঠিক একই সময়ে বর্ধিতসভা করে জেলা আওয়ামী লীগ কীভাবে একজন এমপিকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়, তা আমার বোধগম্য নয়।

আল-মামুন সাগর/এএম/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :