রাজশাহীতে আজও তাপমাত্রা ৫.৩

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ১০:৫৪ এএম, ০৮ জানুয়ারি ২০১৮
রাজশাহীতে আজও তাপমাত্রা ৫.৩

টানা শৈত্যপ্রবাহে বিপর্যস্ত রাজশাহীর জনজীবন। স্থবির হয়ে পড়েছে কাজকর্ম। প্রয়োজন ছাড়া এলাকার মানুষ বাইরে বের হচ্ছে না। কিন্তু নিম্ন আয়ের মানুষের বিরাম নেই। আজ সোমবারও তাপমাত্রার পারদ রয়েছে নিচের দিকে। রাজশাহীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রোববারও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ওই দিন থেকেই তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বইছে এ অঞ্চলের উপর দিয়ে।

কয়েকদিন ধরেই পড়ছে ঘন কুয়াশা। বেলা ১০টা পর্যন্ত দেখা মেলেনি সূর্যের। তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে হিমালয় ছুঁয়ে আসা হিমশীতল হাওয়া। এতেই কাঁপছে উত্তরের এ জনপদ। বিশেষে করে ভাসমান ও ছিন্নমূল মানুষগুলোর দুর্ভোগের অন্ত নেই।

তবে শীতার্তদের সহায়তায় এরই মধ্যে ৫২ হাজার ৫০০ কম্বল বিতরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আমিনুল হক। তিনি বলেন, শীত শুরুর আগেই তারা এসব কম্বল বিতরণ করেছেন। বাদ পড়েছেন এমন লোকজন নেই বললেই চলে। তারপরও যারা পাননি তাদের শীতবস্ত্র দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। শীতার্তদের পাশে বেসরকারি উদ্যোগে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

এদিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগ জানিয়েছে, শীতজনিত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। বিশেষ করে শিশু ও বয়স্করা বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। এদের অনেকেই ঠান্ডাজনিত ডাইরিয়া, শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়া, হৃদরোগ নিয়ে হাসপাতালে আসছেন।

রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল আলম জানান, সোমবার রাজশাহীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ভোর ৬টা থেকে ৭টার মধ্যে এ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। এটিই চলতি মৌসুমের সর্বনিম্ন তপমাত্রা। এরপর সকাল ৯টায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাত ও দিনের তাপমাত্রা কমে আসায় তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে।

ফেরদৌস সিদ্দিক/এফএ/জেআইএম