কয়রায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৯

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ০২:৪৯ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৮

খুলনার কয়রা উপজেলায় বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আলোচনা সভা চলাকালে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে শ্রমিক লীগ সভাপতিসহ ৯ জন আহত হয়েছেন। আহতদেরকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বুধবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের পিছনে এ ঘটনা ঘটে।

দলীয় সূত্র জানায়, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মহসিন রেজা ও সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শফির নেতৃত্বাধীন স্থানীয় আওয়ামী লীগের বিবাদমান দুই গ্রুপ একত্রিত হয়ে উপজেলা কার্যালয়ে আলোচনা সভার আয়োজন করে। কিছু সময় পর সাবেক ও বর্তমান ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। একপর্যায়ে এক গ্রুপ অপর গ্রুপের উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে চড়াও হয়। এতে ছাত্রলীগের সাবেক নেতা তরিকুল ইসলাম, শ্রমিক লীগ সভাপতি আব্দুল হালিম গাজী, সোহরাব ঢালী, মিজানুর রহমান কোহিনুর, রবিউল ইসলাম, মোজাফ্ফার হোসেন, মাওলা গাজী, জাকারিয়া ও রায়হান আহত হন। আহতদেরকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মহসিন রেজা বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে আলোচনা চলাকালে সেখানে কামরুজ্জামান জামালের উপস্থিতির পরপরই সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে ৯ নেতাকর্মী আহত হন।

এদিকে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান জামাল বলেন, আমি সেখানে (কয়রা উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে) যাবার পর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কে আগে বসবে তা নিয়ে সংঘর্ষ শুরু হয়।

কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনামুল হক বলেন, শান্তিপূর্ণ আলোচনা চলাকালে সেখানে ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতাদের কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে ৭ জন আহত হন। সংঘর্ষের পরপরই পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

আলমগীর হান্নান/এফএ/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :