স্কুলছাত্রকে বলাৎকার করে ভিডিও করলেন যুবলীগ কর্মী

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া
প্রকাশিত: ০৬:৩৬ পিএম, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজের চতুর্থ শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে বলাৎকার করে ভিডিও ধারণের অভিযোগে রতন আলী নামের এক যুবককে (৩০) আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে হরিনারায়ণপুর বালুভাণ্ডার থেকে তাকে আটক করা হয়। অভিযুক্তের নাম রতন। তিনি কুষ্টিয়ার হরিনারায়ণপুর ইউনিয়ন যুবলীগের রাজনীতিতে সক্রিয় এবং ইবি থানাধীন পূর্ব আব্দালপুর গ্রামের মৃত গঞ্জের আলীর ছেলে।

থানা সূত্রে জানা যায়, স্কুলছাত্র নয়ন (ছদ্মনাম) হরিনারায়ণপুরে নিজ গ্রামে বন্ধুদের সঙ্গে খেলতে গেলে রতন তাকে মোটরসাইকেলে ঘুরানোর কথা বলে ডেকে নেয়। পরে নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হরিনারয়ণপুর বাজারের বালুরভাণ্ডারের বাথরুমে নিয়ে বলাৎকার করে এবং সেই ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে। এ সময় ওই ছাত্রকে ঘটনা প্রকাশ না করতে ভয়-ভীতি দেখায় বলেও জানা যায়।

এদিকে, লম্পট রতনের বিরুদ্ধে নিজ বালুভাণ্ডারের কর্মচারীসহ আরও একাধিক শিশুকে এমন অত্যাচার করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে ইবি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রতন শেখ জানান, অভিযোগপ্রাপ্তির ২ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তকে আটক করে ভিডিও জব্দ করেছি। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

ওই ছাত্রের মা বিশ্বববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারের কর্মচারী হিসেবে কর্মরত। তিনি এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজু বলেন, রতন যুবলীগের কোনো কমিটিতে নেই। তবে সে যুবলীগের কর্মী।

সোহাগ/এমএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :