চার সন্তানের মাকে বিয়ে করায় সালিশে বেঁধে পেটালেন ইউপি সদস্য

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০২:৩৪ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০১৯

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদে জনসম্মুখে বেঁধে এক যুবককে মারপিটের অভিযোগে ইউপি সদস্য আকবর হোসেন পাড়কে (৪২) আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। শনিবার রাতে শ্যামনগর থেকে ওই ইউপি সদস্যকে আটক করা হয়।

নির্যাতনের স্বীকার যুবক আব্দুর রাজ্জাক (৩২) মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের মথুরাপুর গ্রামের শিক্ষক দলিল সানার ছেলে। নির্যাতনকারী ইউপি সদস্য আকবর হোসেন পাড় ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি।

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম মোড়ল জানান, শ্যামনগর সদর এলাকার একটি মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল আব্দুর রাজ্জাকের। এক সময় পার্শ্ববর্তী ভুরুলিয়া ইউনিয়নে ওই তাকে বিয়ে দেয় পরিবার। কিন্তু তারপরও তাদের সম্পর্ক চলমান ছিল। বর্তমানে ওই নারীর চার সন্তান। কিছুদিন আগে স্বামীকে তালাক দিয়ে রাজ্জাককে বিয়ে করেন তিনি। তার আগের স্বামী সন্তানদের নিয়ে আমার কাছে সহযোগিতার জন্য আসে।

চেয়ারম্যান আবুল কাশেম মোড়ল বলেন, গত ১২ জানুয়ারি দুপুরে ইউনিয়ন পরিষদে সালিশি বৈঠক ডাকা হয়। তখন আমি উপস্থিত ছিলাম না। ইউপি সদস্য আকবর হোসেন মিমাংসার জন্য আব্দুর রাজ্জাককে মারপিট করে। আর ওই ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনা শুরু হয়। পরে ডিবি পুলিশ ইউপি সদস্যকে আটক করেছে।

এ বিষয়ে জেলা ডিবি পুলিশের ওসি আলী আহম্মেদ হাসেমী বলেন, সালিশি বৈঠককে যুবককে নির্যাতনের ঘটনায় ইউপি সদস্য আকবর আলী পাড়কে আটক করা হয়েছে।

আকরামুল ইসলাম/এফএ/এমএস