বালু উত্তোলনের ঘটনায় ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নীলফামারী
প্রকাশিত: ০৭:২১ পিএম, ০৬ মে ২০২১

নীলফামারীর ডোমার উপজেলার বোড়াগাড়ী পারঘাট এলাকার দেওনাই নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন করে পরিবহনের সময় ট্রলিসহ ১১টি ট্রাক্টর জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় ১২ জনের বিরুদ্ধে ডোমার থানায় মামলা দায়ের করেছে বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা উত্তম কুমার সিং।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) বিকেলে ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজার রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বুধবার রাত সোয়া ৮টার দিকে বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপন আইন ২০১০ এর ১৫ ধারায় মামলাটি রুজু করা হয়েছে। মামলার আলামত হিসেবে ট্রলিসহ ১১টি ট্রাক্টর ও ১৫টি বালু তোলার বেলচা জব্দ করা হয়। মামলায় আসামি করা হয়েছে ডোমারের স্থায়ী বাসিন্দা আয়নাল হক, মশিয়ার রহমান, মানিক, সেলিম মিয়া, ওমর ফারুক, আজিবর রহমান, রাজা মিয়া, জাহিদ মিয়া, সাবু মিয়া, লক্ষ্মন, সোহেল ও উজ্জল।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ডোমারের দেওনাই নদীটি খনন করে পানি উন্নয়ন বোর্ড। নদী খননের বালু নিলামে বিক্রি করা হয় সরকারিভাবে। নিলামে বালু অপসারণ ও বিক্রির জন্য অনুমোদন পায় ডোমারের আয়নাল হক ও মশিয়ার রহমান। তারা নিয়ম অনুযায়ী চলতি বছরের ১২ এপ্রিলের মধ্যে নিলামের বালু অপসারণ করে তা বিক্রি করেন।

এরপরও তারাসহ আরও অনেকে প্রভাব বিস্তার করে নদী থেকে নতুন করে বালু কেটে বিক্রি করছিলেন। তাদের এলাকাবাসী বাধা দিলে তারা ডোমার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডোমার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদের নাম ব্যবহারের মাধ্যমে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে তা বিক্রি করছিলেন।

এ ঘটনায় একটি অভিযোগ পায় উপজেলা প্রশাসন। ওই অভিযোগে বুধবার দুপুরে বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা উত্তম কুমার সিং ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে ট্রলিসহ ১১টি ট্রাক্টর ও ১৫টি বালু তোলার বেলচা জব্দ করার পর রাতে ডোমার থানায় মামলা দায়ের করে।

জাহেদুল ইসলাম/এসজে/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]