যৌতুক : হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে স্ত্রীকে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুষ্টিয়া
প্রকাশিত: ০৬:৪৩ পিএম, ১২ জুন ২০২১
নিহত পলি খাতুন ও তার স্বামী আবু বক্কর

কুষ্টিয়ার মিরপুরে যৌতুকের টাকা না পেয়ে পলি খাতুন নামে এক গৃহবধূকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছেন স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের স্বামী আবু বক্করকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১২ জুন) সকালে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সাত বছর আগে মিরপুর উপজেলার খয়েরপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ে পলি খাতুনের সঙ্গে একই গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে আবু বক্করের বিয়ে হয়। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে পলি খাতুনের ওপর স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন শারীরিক নির্যাতন চালাতেন।

পলির বড় ভাই আক্তারুজ্জামান বাবু জানান, যৌতুকের জন্য বোনকে শারীরিক নির্যাতন করার কথা জানতে পেরে কয়েক দফায় আবু বক্করের হাতে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার তুলে দেন। কিন্তু এতেও তাদের মন ভরেনি। যৌতুকের জন্য আবারও দফায় দফায় পলির ওপর নির্যাতন চলতে থাকে। এরই মধ্যে পলির স্বামী মাদক ব্যবসা ও নিয়মিত মাদক সেবন শুরু করেন।

পলির বড় ভাই আরও জানান, ২ জুন মদ্যপ অবস্থায় আবু বক্কর যৌতুকের টাকার জন্য পলি খাতুনের ওপর শারীরিক নির্যাতন শুরু করে। এক পর্যায়ে স্বামী আবু বক্কর ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন পলিকে হাতুড়ি দিয়ে পেটান। আশঙ্কাজনক অবস্থায় পলিকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে পলির স্বজনরা হাসপাতালে গেলে তার স্বামী আবু বক্করসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন সটকে পড়েন। শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে পলিকে ঢাকার নিউরোসাইন্স হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার বিকেলে চিকিৎসাধীন পলি মারা যান।

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা জানান, ‘নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আকতারুজ্জামান বাবু বাদী হয়ে পলির স্বামী আবু বক্কর ও শ্বশুর-শাশুড়িসহ চারজনের জনের বিরুদ্ধে মিরপুর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। নিহত পলির স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এজাহারভুক্ত অপর আসামিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আল মামুন সাগর/এসজে/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]