নেত্রকোনা হাসপাতালে জনবল সঙ্কট, করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিতে হিমশিম

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোনা
প্রকাশিত: ১২:১৬ পিএম, ২৪ জুন ২০২১

নেত্রকোনায় ফের বাড়তে শুরু করেছে করোনা সংক্রমণ। সীমান্তের দুই উপজেলা দুর্গাপুর ও কলমাকান্দার চারটি ইউনিয়নে প্রতিদিন শত শত করোনার লক্ষণ নিয়ে রোগীরা আসছেন হাসপাতালে। সর্দি, জ্বর, কাশি ও গলা ব্যথার রোগীরা ভিড় করছে চিকিৎসা কেন্দ্রে।

এ পরিস্থিতিতেও নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে চালু হয়নি সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থার। নেই কোনো ভেন্টিলেটর। নেই নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) বেডও।

হাসপাতালটিতে রয়েছে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সঙ্কট। জরুরি চিকিৎসার জন্য অপরিহার্য এসব ব্যবস্থা না থাকায় চলমান পরিস্থিতিতে জেলাবাসীর মধ্যে এক ধরনের আতঙ্ক বিরাজ করছে। সঙ্কটময় মুহূর্তে হাসপাতালটি নিজেই যেন ভুগছে নানান সমস্যায়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালটি জেলা সদরের একমাত্র সরকারি হাসপাতাল। জেলা সদর ছাড়াও ৯ উপজেলার রোগীরা জরুরি ও উন্নত চিকিৎসার জন্য এ হাসপাতালটির ওপর নির্ভর করেন। এরইমধ্যে হাসপাতালটি ১০০ শয্যায় উন্নীত করা হলেও এখনও এর কার্যক্রম চলছে ৫০ শয্যার জনবল দিয়েই।

গতবছর করোনা পরিস্থিতির শুরুতে হাসপাতালটিতে ৩৬টি শয্যা নিয়ে চালু করা হয় করোনা ওয়ার্ড। কিন্তু কেবল ৩৬টি শয্যা, তিনটি পালস অক্সিমিটার আর ১১টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর ছাড়া আর কিছুই যেন নেই করোনা ইউনিটে। শ্বাসকষ্টের রোগীদের জন্য অক্সিজেন সহায়তা অপরিহার্য হলেও পুরো হাসপাতালে আজও সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা চালু করা হয়নি। গণপূর্ত বিভাগ সেন্ট্রাল অক্সিজেন চালুর জন্য একটি প্রকল্প অনুমোদন করছে। তবে এখনো শেষ হয়নি এর কাজ।

সম্প্রতি হাসপাতালটির জন্য দুটি ভেন্টিলেটর মেশিন সরবরাহ করা হলেও অ্যানেসথেসিস্ট ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এবং সেন্ট্রাল অক্সিজেনের অভাবে সেগুলোও চালু করা সম্ভব হচ্ছে না। পুরো হাসপাতালে একটিও আইসিইউ বেড নেই। হাই-ফ্লো ন্যাজাল কেনুলারও অভাব রয়েছে।

পুরো হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা চলছে মাত্র একটি অ্যাম্বুলেন্স দিয়ে। রোগীর চাপ বেশি থাকায় বেশিরভাগ সময় প্রাইভেট অ্যাম্বুলেন্স ডেকে আনতে হয়। হাসপাতালটিতে পরিচ্ছন্নতা কর্মীসহ তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীরও সঙ্কট রয়েছে। উপজেলা হাসপাতালগুলো থেকে কর্মচারীদের এনে চাপ সামলানো হচ্ছে।

নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, হাসপাতালে ৯টি সিনিয়র কনসালটেন্ট পদ এবং আটটি জুনিয়র কনসালটেন্টের পদ শূন্য রয়েছে। সিনিয়র কনসালটেন্টের মধ্যে কার্ডিওলজি, মেডিসিন, চক্ষু, ইএনটি, শিশু, প্যাথলজি, গাইনী, অ্যানেসথেসিয়া এবং অর্থোপেডিক্সের পদ শূন্য। অ্যানেসথেসিস্ট না থাকায় সব ধরনের অপারেশনের কাজও বন্ধ বলে জানা গেছে। অনেক সময় বাইরে থেকে অ্যানেসথেসিস্ট এনে অপারেশনের কাজ করানো হয়।

জুনিয়র কনসালটেন্ট পদের মধ্যে রয়েছে- প্যাথলজি, ইএনটি, চক্ষু, শিশু, চর্ম ও যৌন, মেডিসিন, সার্জারি এবং রেডিওলজি অ্যান্ড ইমেজিং চিকিৎসক। এছাড়া মেডিকেল কর্মকর্তার একজন, সমমানের সহকারী সার্জন সাতজন, প্যাথলজিস্ট একজন, ডেন্টাল সার্জন একজন এবং একজন হোমিও মেডিকেল অফিসারের পদ শূন্য রয়েছে।

অপরদিকে, তৃতীয় শ্রেণির ৫৪টি পদের মধ্যে ২৯টি পদ শূন্য থাকায় হাসপাতালের স্বাভাবিক কাজ কর্মের সমস্যা হচ্ছে। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক না থাকায় স্বাভাবিক রোগীদের ময়মনসিংহ অথবা ঢাকায় রেফার করা হচ্ছে।

করোনা রোগীদের চিকিৎসা ব্যবস্থা আরও নাজুক। বর্তমানে চারজন করোনা রোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। করোনা রোগীদের জন্য ৩৬টি বেড রয়েছে। করোনার আশঙ্কাজনক রোগী হাসপাতালে গেলেই সমস্যায় পড়তে হবে কর্তৃপক্ষের।

সিভিল সার্জন অফিসে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শনিবার নেত্রকোনায় ১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। জেলায় মোট রোগী ১ হাজার ২৮৪ জনের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ১০৭ জন। মারা গেছেন ২৫ জন।

র্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করতে গেলে অতিরিক্ত টাকা না দিলে নমুনা না নেয়ারও অভিযোগ রয়েছে সদর হাসপাতালের ল্যাবে কর্মরতদের বিরুদ্ধে। এছাড়া নমুনা দেয়ার পর রিপোর্ট প্রাপ্তির ক্ষেত্রেও পোহাতে হয় বিড়ম্বনা।

দুর্গাপুর সীমান্তের বিজয়পুর বিজিবি ক্যাম্প ইনচার্জ হুমায়ূন কবীর বলেন, ‘সীমান্তে অবৈধ চলাচলের বিষয়ে আমরা শুরু থেকেই কঠোর অবস্থানে রয়েছি। সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক সীমান্ত এলাকায় কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। পর্যটক বা কোনো প্রকার চোরা-কারবারি আমাদের চোখ ফাঁকি দিয়ে আসা-যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।’

দুর্গাপুর উপজেলা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা তানজিরুল ইসলাম বলেন, ‘প্রতিদিন শতাধিক মানুষ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আসছেন জ্বর, সর্দি-কাশি ও গলা ব্যথা নিয়ে। এদের মধ্যে অধিকাংশ ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর। আমাদের মেডিকেল অফিসাররা ২৪ ঘণ্টা জরুরি সেবা চালু রেখেছেন। রোগীদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসাপত্র দিয়ে নিজ নিজ বাড়িতেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে অবস্থান করতে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।’

তবে সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. এএসএম মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা চালু করতে আরও সময় লাগবে। ভেন্টিলেটর দুটো চালু করতেও কমপক্ষে তিনজন অ্যানেসথেটিস্ট এবং অন্তত একজন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক প্রয়োজন। চলতি মাসের মধ্যে সেন্ট্রাল অক্সিজেন স্থাপনের কাজ শেষ হবে।’

সিভিল সার্জন ডা. সেলিম মিঞা বলেন, ‘করোনায় আক্রান্ত সাধারণ রোগীদের চিকিৎসার জন্য সব প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে। তবে জটিল রোগী হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠাতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘করোনা রোগীদের পরিবহনের জন্য আমরা আরেকটি বিকল্প অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করছি। এছাড়া সব ধরনের সরঞ্জাম চেয়ে বিভাগীয় পরিচালকের কাছে চাহিদাপত্র পাঠিয়েছি।’

আক্রান্ত রোগীদের ভারতীয় ধরন আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এর জন্য ঢাকায় যোগাযোগ করা হয়েছে।’

নেত্রকোনার জেলা প্রশাসক কাজি মো. আবদুর রহমান বলেন, ‘জেলা প্রশাসনে জরুরি ভিত্তিতে ভার্চুয়াল সভা ডাকা হয়েছে। সভার সিদ্ধান্ত হয়েছে চার ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামে লকডাউন দেয়ার। অতিরিক্ত আক্রান্ত ইউনিয়নগুলোতে গিয়ে ভ্রাম্যমাণ নমুনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। অন্যান্য সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে।

এইচ এম কামাল/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাস - লাইভ আপডেট

১৯,৮৯,৬৪,০২৫
আক্রান্ত

৪২,৩৯,৪৯২
মৃত

১৭,৯৫,৮৭,৭৪৫
সুস্থ

# দেশ আক্রান্ত মৃত সুস্থ
বাংলাদেশ ১২,৬৪,৩২৮ ২০,৯১৬ ১০,৯৩,২৬৬
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ৩,৫৭,৬৬,৬৭৪ ৬,২৯,৩৮০ ২,৯৬,৭৩,২৯০
ভারত ৩,১৬,৯৫,৩৬৮ ৪,২৪,৮০৮ ৩,০৮,৪৯,৬৮১
ব্রাজিল ১,৯৯,৩৮,৩৫৮ ৫,৫৬,৮৩৪ ১,৮৬,৪৫,৯৯৩
রাশিয়া ৬২,৮৮,৬৭৭ ১,৫৯,৩৫২ ৫৬,২৫,৮৯০
ফ্রান্স ৬১,৪৬,৬১৯ ১,১১,৮৮৫ ৫৭,০২,০৩২
যুক্তরাজ্য ৫৮,৮০,৬৬৭ ১,২৯,৭১৯ ৪৫,২০,১৯৯
তুরস্ক ৫৭,৪৭,৯৩৫ ৫১,৪২৮ ৫৪,৫৯,৮৯৯
আর্জেন্টিনা ৪৯,৩৫,৮৪৭ ১,০৫,৭৭২ ৪৫,৮১,১৩২
১০ কলম্বিয়া ৪৭,৯৪,৪১৪ ১,২০,৯৯৮ ৪৫,৮৭,৭৫৪
১১ স্পেন ৪৪,৪৭,০৪৪ ৮১,৪৮৬ ৩৭,১১,২০০
১২ ইতালি ৪৩,৫৫,৩৪৮ ১,২৮,০৬৮ ৪১,৩৫,৯৩০
১৩ ইরান ৩৯,০৩,৫১৯ ৯০,৯৯৬ ৩৩,৮৫,১৯৫
১৪ জার্মানি ৩৭,৭৮,২৭৬ ৯২,১৭২ ৩৬,৫৪,৫০০
১৫ ইন্দোনেশিয়া ৩৪,৪০,৩৯৬ ৯৫,৭২৩ ২৮,০৯,৫৩৮
১৬ পোল্যান্ড ২৮,৮৩,০২৯ ৭৫,২৬১ ২৬,৫৩,৮০৭
১৭ মেক্সিকো ২৮,৪৮,২৫২ ২,৪০,৯০৬ ২২,১৫,৮৮৪
১৮ দক্ষিণ আফ্রিকা ২৪,৫৬,১৮৪ ৭২,১৯১ ২২,৩০,৮৭১
১৯ ইউক্রেন ২২,৫৩,২৬৯ ৫২,৯৫১ ২১,৮৬,৯৯৪
২০ পেরু ২১,১১,৩৯৩ ১,৯৬,৩৫৩ ১৭,২০,৬৬৫
২১ নেদারল্যান্ডস ১৮,৬৭,৮১৫ ১৭,৮২৯ ১৬,৬৮,৯৩৯
২২ চেক প্রজাতন্ত্র ১৬,৭৩,৬৯৪ ৩০,৩৭৪ ১৬,৪০,৫৯৯
২৩ ইরাক ১৬,৩৫,৯৯৩ ১৮,৭৩৪ ১৪,৭২,০৯৩
২৪ চিলি ১৬,১৬,৯৪২ ৩৫,৫২৮ ১৫,৭১,৭৮৮
২৫ ফিলিপাইন ১৫,৯৭,৬৮৯ ২৮,০১৬ ১৫,০৬,০২৭
২৬ কানাডা ১৪,৩১,০৪৩ ২৬,৬০০ ১৩,৯৭,৭৯৬
২৭ মালয়েশিয়া ১১,৩০,৪২২ ৯,১৮৪ ৯,২৫,৯৬৫
২৮ বেলজিয়াম ১১,২৪,৭১৫ ২৫,২৪১ ১০,৫৯,৮৯৬
২৯ সুইডেন ১১,০০,০৪০ ১৪,৬১৮ ১০,৭৬,৩১১
৩০ রোমানিয়া ১০,৮৩,৩৪১ ৩৪,২৮৬ ১০,৪৭,৭৬৭
৩১ পাকিস্তান ১০,৩৪,৮৩৭ ২৩,৪২২ ৯,৪১,৬৫৯
৩২ পর্তুগাল ৯,৭০,৯৩৭ ১৭,৩৬৯ ৯,০৩,৫১৪
৩৩ জাপান ৯,২৫,৮২৩ ১৫,১৯২ ৮,৩৯,২৪৬
৩৪ ইসরায়েল ৮,৭৫,৮০১ ৬,৪৭৭ ৮,৫০,৯৫০
৩৫ হাঙ্গেরি ৮,০৯,৪৯১ ৩০,০২৬ ৭,৪৮,১৫৭
৩৬ জর্ডান ৭,৭১,৭৫৩ ১০,০৪৮ ৭,৫১,১৭৭
৩৭ সার্বিয়া ৭,২২,২২১ ৭,১১৮ ৭,১০,৬৯৮
৩৮ সুইজারল্যান্ড ৭,১৭,৬৬৫ ১০,৯০৬ ৬,৯২,১০১
৩৯ নেপাল ৬,৯৭,৩৭০ ৯,৮৭৫ ৬,৫৬,১৯৭
৪০ সংযুক্ত আরব আমিরাত ৬,৮২,৩৭৭ ১,৯৫১ ৬,৫৯,৬৬৪
৪১ অস্ট্রিয়া ৬,৫৯,৫০৮ ১০,৭৩৮ ৬,৪৩,৩৮৭
৪২ মরক্কো ৬,২৯,৭১৭ ৯,৮৩৩ ৫,৬৬,০০৮
৪৩ থাইল্যান্ড ৬,১৫,৩১৪ ৪,৯৯০ ৪,০৫,৩২২
৪৪ তিউনিশিয়া ৫,৯২,৮৮১ ১৯,৮৫৮ ৫,১৩,৬২৯
৪৫ কাজাখস্তান ৫,৮০,৩৭৯ ৫,৮৬৬ ৪,৭৮,২৭৭
৪৬ লেবানন ৫,৬২,৫২৭ ৭,৯০৯ ৫,৩৭,১১১
৪৭ সৌদি আরব ৫,২৬,৮১৪ ৮,২৪৯ ৫,০৭,৩৭৪
৪৮ গ্রীস ৪,৯৪,৯০৭ ১২,৯৫০ ৪,৫০,৫৩৩
৪৯ ইকুয়েডর ৪,৮৭,৩৭২ ৩১,৬৩১ ৪,৪৩,৮৮০
৫০ বলিভিয়া ৪,৭৩,৫০৬ ১৭,৮২১ ৪,০৭,৯৩২
৫১ প্যারাগুয়ে ৪,৫২,৩৮৮ ১৪,৯৮১ ৪,২০,০৩১
৫২ বেলারুশ ৪,৪৬,৯৯৮ ৩,৪৬৪ ৪,৪১,৩৬৯
৫৩ পানামা ৪,৩৫,৬৫৫ ৬,৮২৩ ৪,১৬,২৬৩
৫৪ বুলগেরিয়া ৪,২৫,১৪৮ ১৮,২১৫ ৩,৯৮,৫৫৪
৫৫ জর্জিয়া ৪,২২,১৮৮ ৫,৮৫৩ ৩,৮৪,৭১২
৫৬ কোস্টারিকা ৪,০৬,৮১৪ ৫,০৩০ ৩,২৯,৬৩৯
৫৭ কুয়েত ৩,৯৮,৫৩৮ ২,৩২৮ ৩,৮৫,৪০১
৫৮ কিউবা ৩,৯৪,৩৪৩ ২,৮৪৫ ৩,৪৮,৪৮৭
৫৯ স্লোভাকিয়া ৩,৯২,৭০৪ ১২,৫৪০ ৩,৭৯,৫৬০
৬০ উরুগুয়ে ৩,৮১,৫৬৯ ৫,৯৬৬ ৩,৭৩,৬৩৬
৬১ গুয়াতেমালা ৩,৬৯,৬২৬ ১০,৪১৩ ৩,২৪,৩৩২
৬২ ক্রোয়েশিয়া ৩,৬৩,৭৫৮ ৮,২৬৩ ৩,৫৪,৩৯৩
৬৩ আজারবাইজান ৩,৪৪,৫২০ ৫,০২৭ ৩,৩৩,১২৮
৬৪ ডোমিনিকান আইল্যান্ড ৩,৪২,২৬৭ ৩,৯৬৩ ৩,২৩,৭০০
৬৫ ডেনমার্ক ৩,১৭,৭০০ ২,৫৪৯ ৩,০৩,৯৫৮
৬৬ ফিলিস্তিন ৩,১৬,৮৬১ ৩,৬০৪ ৩,১১,৯১৮
৬৭ শ্রীলংকা ৩,১১,৩৪৯ ৪,৫০৩ ২,৭৮,৯১০
৬৮ ভেনেজুয়েলা ৩,০৫,৭৬৬ ৩,৫৯১ ২,৯০,১৮১
৬৯ মায়ানমার ৩,০২,৬৬৫ ৯,৭৩১ ২,১৩,২২৭
৭০ আয়ারল্যান্ড ৩,০২,০৭৪ ৫,০৩৫ ২,৬৮,২৬১
৭১ হন্ডুরাস ২,৯৭,১১১ ৭,৮৩৪ ১,০০,৬৯৭
৭২ ওমান ২,৯৬,৮৩৫ ৩,৮৫০ ২,৭৯,৮৯২
৭৩ মিসর ২,৮৪,২৬২ ১৬,৫২৪ ২,৩০,৩৬৮
৭৪ লিথুনিয়া ২,৮৩,০১৬ ৪,৪১৬ ২,৬৯,৩২৩
৭৫ ইথিওপিয়া ২,৮০,৫৬৫ ৪,৩৯০ ২,৬৩,৫৮৭
৭৬ বাহরাইন ২,৬৯,৩০৩ ১,৩৮৪ ২,৬৬,৯২১
৭৭ মলদোভা ২,৫৯,৫৪৯ ৬,২৫৫ ২,৫২,১০৪
৭৮ স্লোভেনিয়া ২,৫৯,২৭৩ ৪,৪২৯ ২,৫৩,৭৬৩
৭৯ লিবিয়া ২,৫৩,৪৩৬ ৩,৫৪৮ ১,৯২,১৮৪
৮০ আর্মেনিয়া ২,৩০,৩৩৯ ৪,৬১৯ ২,১৯,৯৮৬
৮১ কাতার ২,২৬,৩৯০ ৬০১ ২,২৩,৮৪৯
৮২ বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা ২,০৫,৬৫৫ ৯,৬৮৭ ১,৮৯,৩৬৯
৮৩ কেনিয়া ২,০৩,৬৮০ ৩,৯৪৬ ১,৮৯,১৩১
৮৪ দক্ষিণ কোরিয়া ১,৯৯,৭৮৭ ২,০৯৮ ১,৭৫,৬৭৪
৮৫ জাম্বিয়া ১,৯৬,২৯৩ ৩,৪০৬ ১,৮৮,১০৬
৮৬ নাইজেরিয়া ১,৭৩,৯০৮ ২,১৪৯ ১,৬৪,৯৯৪
৮৭ আলজেরিয়া ১,৭২,৫৬৪ ৪,২৯১ ১,১৬,০০৯
৮৮ মঙ্গোলিয়া ১,৬৫,১৪৭ ৮২০ ১,৬৪,৮২৯
৮৯ কিরগিজস্তান ১,৬৩,৮৪৬ ২,৩৩৫ ১,৪৬,০৬১
৯০ উত্তর ম্যাসেডোনিয়া ১,৫৬,৪৫২ ৫,৪৯৩ ১,৫০,৩৭১
৯১ ভিয়েতনাম ১,৫০,০৬০ ১,৩০৬ ৩৮,৭৩৪
৯২ আফগানিস্তান ১,৪৭,৯৮৫ ৬,৭৭৪ ৯৯,৪৪৯
৯৩ লাটভিয়া ১,৩৮,৮৯৯ ২,৫৫৬ ১,৩৫,৫৮৩
৯৪ নরওয়ে ১,৩৭,৮৫৩ ৭৯৯ ৮৮,৯৫২
৯৫ এস্তোনিয়া ১,৩৩,৬৮৫ ১,২৭২ ১,২৮,৯০২
৯৬ আলবেনিয়া ১,৩৩,১২১ ২,৪৫৭ ১,৩০,২৪৩
৯৭ উজবেকিস্তান ১,৩০,২১৬ ৮৮০ ১,২৩,৯৯৫
৯৮ মোজাম্বিক ১,২৩,৫৪১ ১,৪৬২ ৯০,৮৪৫
৯৯ নামিবিয়া ১,১৯,২৮৫ ৩,০৫৭ ৯৫,৯১৩
১০০ জিম্বাবুয়ে ১,০৮,৮৬০ ৩,৫৩২ ৭৫,৮৫৬
১০১ ফিনল্যাণ্ড ১,০৭,৩২১ ৯৮২ ৪৬,০০০
১০২ বতসোয়ানা ১,০৬,৬৯০ ১,৫৬৯ ৯৫,৩২৩
১০৩ ঘানা ১,০৩,০১৯ ৮২৩ ৯৭,২১৩
১০৪ সাইপ্রাস ১,০২,২২৩ ৪২২ ৮০,১৭৮
১০৫ মন্টিনিগ্রো ১,০২,০৯২ ১,৬৩০ ৯৯,০১১
১০৬ উগান্ডা ৯৪,১৯৫ ২,৬৯৬ ৮৪,০৫২
১০৭ চীন ৯৩,০০৫ ৪,৬৩৬ ৮৭,৩৪৭
১০৮ এল সালভাদর ৮৬,৬২০ ২,৬৪১ ৭৬,২৬৫
১০৯ ক্যামেরুন ৮২,০৬৪ ১,৩৩৪ ৮০,৪৩৩
১১০ কম্বোডিয়া ৭৭,৯১৪ ১,৪২০ ৭০,৭৫৪
১১১ মালদ্বীপ ৭৭,৫৪৭ ২২১ ৭৪,৭৫৮
১১২ লুক্সেমবার্গ ৭৩,৮৭০ ৮২২ ৭১,৮৬৭
১১৩ রুয়ান্ডা ৭১,৩৪৬ ৮২১ ৪৪,৮৫৬
১১৪ সিঙ্গাপুর ৬৫,১০২ ৩৭ ৬২,৯৫৭
১১৫ সেনেগাল ৬৩,০০২ ১,৩৬৭ ৪৭,৫৭৯
১১৬ জ্যামাইকা ৫৩,২৩৭ ১,১৯৬ ৪৭,০০১
১১৭ মালাউই ৫২,৬৩১ ১,৬৬১ ৩৮,১৪৭
১১৮ আইভরি কোস্ট ৫০,১৩৫ ৩২৯ ৪৯,২৬১
১১৯ ড্যানিশ রিফিউজি কাউন্সিল ৪৯,৯১৭ ১,০৩৮ ২৯,৯৯৪
১২০ অ্যাঙ্গোলা ৪২,৭৭৭ ১,০১১ ৩৭,২৫৫
১২১ মাদাগাস্কার ৪২,৬৬৫ ৯৪৩ ৪১,১৫১
১২২ ত্রিনিদাদ ও টোবাগো ৩৮,৮১১ ১,০৭০ ৩১,৭৮৩
১২৩ রিইউনিয়ন ৩৭,২৩১ ২৭৫ ৩৩,৮৯৪
১২৪ সুদান ৩৭,১৩৮ ২,৭৭৬ ৩০,৮৬৭
১২৫ অস্ট্রেলিয়া ৩৪,৩৮১ ৯২৪ ২৯,৯২৬
১২৬ মালটা ৩৪,৩৭৫ ৪২৩ ৩১,৮৪৩
১২৭ কেপ ভার্দে ৩৩,৭৯১ ২৯৮ ৩৩,০১১
১২৮ ফিজি ৩০,৪১৩ ২৪১ ৭,৯৪২
১২৯ ফ্রেঞ্চ গায়ানা ৩০,১৬৪ ১৮৭ ৯,৯৯৫
১৩০ ইসওয়াতিনি ২৬,২২০ ৭৯৮ ২১,০৪৭
১৩১ সিরিয়া ২৫,৯৮৩ ১,৯১৬ ২১,৯৯৫
১৩২ মৌরিতানিয়া ২৫,৯৭৩ ৫৬৭ ২২,৪০৬
১৩৩ গিনি ২৫,৮০১ ২২৯ ২৪,২৪২
১৩৪ গ্যাবন ২৫,৩৮৪ ১৬৪ ২৫,১৬৬
১৩৫ সুরিনাম ২৫,৩৫১ ৬৪৯ ২১,৭০০
১৩৬ গায়ানা ২২,৫২৩ ৫৪১ ২১,১৮৩
১৩৭ মায়োত্তে ২০,১৭৬ ১৭৪ ২,৯৬৪
১৩৮ হাইতি ২০,১৫৭ ৫৫৫ ১৪,২৪৮
১৩৯ ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়া ২০,০৪৮ ১৪৯ ১৯,২০৬
১৪০ গুয়াদেলৌপ ১৯,৫০৩ ২৪২ ২,২৫০
১৪১ মার্টিনিক ১৯,১৪৯ ১১১ ১০৪
১৪২ সিসিলি ১৮,১৮৯ ৯৪ ১৭,৫৩৮
১৪৩ পাপুয়া নিউ গিনি ১৭,৭১৭ ১৯২ ১৭,৩২৪
১৪৪ টোগো ১৫,৮৭০ ১৫৩ ১৪,৪৯৩
১৪৫ তাইওয়ান ১৫,৬৮৮ ৭৮৯ ১৪,১৩৩
১৪৬ সোমালিয়া ১৫,৪৫৬ ৮১৩ ৭,৫৬৭
১৪৭ তাজিকিস্তান ১৫,০৮২ ১২১ ১৪,৫৫৬
১৪৮ বাহামা ১৪,৮৪০ ২৮৭ ১২,৬০৬
১৪৯ এনডোরা ১৪,৬৭৮ ১২৮ ১৪,২১০
১৫০ মালি ১৪,৫৮৭ ৫৩৩ ১৩,৯৪৮
১৫১ বেলিজ ১৪,১৬৩ ৩৩৭ ১৩,৪২০
১৫২ কিউরাসাও ১৩,৬৬৯ ১২৭ ১২,৯২৬
১৫৩ লেসোথো ১৩,৬০৩ ৩৭৭ ৬,৬৬৪
১৫৪ বুর্কিনা ফাঁসো ১৩,৫৮৮ ১৬৯ ১৩,৩৬৯
১৫৫ কঙ্গো ১৩,১৮৬ ১৭৮ ১২,৪২১
১৫৬ হংকং ১১,৯৮৮ ২১২ ১১,৭১৫
১৫৭ আরুবা ১১,৭৩০ ১১০ ১১,১৬০
১৫৮ জিবুতি ১১,৬৫১ ১৫৬ ১১,৪৯০
১৫৯ দক্ষিণ সুদান ১১,০৪৯ ১১৯ ১০,৫১৪
১৬০ পূর্ব তিমুর ১০,৯৬৬ ২৬ ৯,৯১১
১৬১ নিকারাগুয়া ৯,৪৭০ ১৯৫ ৪,২২৫
১৬২ চ্যানেল আইল্যান্ড ৯,২১৪ ৮৭ ৬,৫৬৪
১৬৩ ইকোয়েটরিয়াল গিনি ৮,৮৮০ ১২৩ ৮,৬৩৭
১৬৪ বেনিন ৮,৩৯৪ ১০৮ ৮,১৩৬
১৬৫ আইসল্যান্ড ৮,০৫১ ৩০ ৬,৭৯৫
১৬৬ গাম্বিয়া ৭,৭০৯ ২১২ ৬,৬০০
১৬৭ সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক ৭,১৫১ ৯৮ ৬,৮৫৯
১৬৮ বুরুন্ডি ৭,০৮০ ৭৭৩
১৬৯ ইয়েমেন ৭,০৭০ ১,৩৭৭ ৪,২০০
১৭০ লাওস ৬,৫৬৬ ৩,০৩০
১৭১ ইরিত্রিয়া ৬,৫৪৭ ৩৫ ৬,৪৪৪
১৭২ সিয়েরা লিওন ৬,২৮৩ ১২০ ৪,২৭০
১৭৩ নাইজার ৫,৬২৩ ১৯৫ ৫,৩৪২
১৭৪ সেন্ট লুসিয়া ৫,৬১০ ৮৯ ৫,৩৭৭
১৭৫ লাইবেরিয়া ৫,৩৯৬ ১৪৮ ২,৭১৫
১৭৬ সান ম্যারিনো ৫,১৩০ ৯০ ৫,০০৫
১৭৭ জিব্রাল্টার ৪,৯৮০ ৯৪ ৪,৬১৪
১৭৮ চাদ ৪,৯৭৩ ১৭৪ ৪,৭৯৩
১৭৯ আইল অফ ম্যান ৪,৮১৮ ৩০ ৩,৩৬৫
১৮০ গিনি বিসাউ ৪,৪৭৯ ৭৬ ৩,৯২৯
১৮১ বার্বাডোস ৪,৪০৭ ৪৮ ৪,২২৯
১৮২ কমোরস ৪,০২৮ ১৪৭ ৩,৮৬৯
১৮৩ মরিশাস ৩,৯১৩ ১৯ ১,৮৫৪
১৮৪ লিচেনস্টেইন ৩,০৮৫ ৫৯ ৩,০০৯
১৮৫ মোনাকো ২,৮৯১ ৩৩ ২,৭১৫
১৮৬ নিউজিল্যান্ড ২,৮৭৩ ২৬ ২,৮১১
১৮৭ সিন্ট মার্টেন ২,৭৭০ ৩৪ ২,৬৫৫
১৮৮ সেন্ট মার্টিন ২,৫৭৯ ৩৮ ১,৩৯৯
১৮৯ বারমুডা ২,৫৬৮ ৩৩ ২,৪৯৯
১৯০ ভুটান ২,৫১৮ ২,৩৮৪
১৯১ ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ ২,৫০০ ৩১ ১,৯১৪
১৯২ টার্কস্ ও কেইকোস আইল্যান্ড ২,৪৮৬ ১৮ ২,৪৩৩
১৯৩ সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইন আইল্যান্ড ২,২৯১ ১২ ২,২২৯
১৯৪ ক্যারিবিয়ান নেদারল্যান্ডস ১,৭০৭ ১৭ ৬,৪৪৫
১৯৫ অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ১,৩০৩ ৪৩ ১,২৩৫
১৯৬ সেন্ট বারথেলিমি ১,১৯৫ ৪৬২
১৯৭ তানজানিয়া ১,০১৭ ২১ ১৮৩
১৯৮ ফারে আইল্যান্ড ৯৮৩ ৯৪৩
১৯৯ ডায়মন্ড প্রিন্সেস (প্রমোদ তরী) ৭১২ ১৩ ৬৯৯
২০০ কেম্যান আইল্যান্ড ৬৪৩ ৬৩১
২০১ সেন্ট কিটস ও নেভিস ৫৯৪ ৫৪৬
২০২ ওয়ালিস ও ফুটুনা ৪৪৫ ৪৩৮
২০৩ ব্রুনাই ৩৩৭ ২৮০
২০৪ ডোমিনিকা ২১৮ ২০৯
২০৫ গ্রেনাডা ১৬৪ ১৬১
২০৬ নিউ ক্যালেডোনিয়া ১৩৪ ৫৮
২০৭ গ্রীনল্যাণ্ড ১২২ ৭৮
২০৮ এ্যাঙ্গুইলা ১১৩ ১১১
২০৯ ফকল্যান্ড আইল্যান্ড ৬৩ ৬৩
২১০ ম্যাকাও ৫৯ ৫৪
২১১ সেন্ট পিয়ের এন্ড মিকেলন ২৮ ২৬
২১২ ভ্যাটিকান সিটি ২৭ ২৭
২১৩ মন্টসেরাট ২১ ১৯
২১৪ সলোমান আইল্যান্ড ২০ ২০
২১৫ পশ্চিম সাহারা ১০
২১৬ জান্ডাম (জাহাজ)
২১৭ মার্শাল আইল্যান্ড
২১৮ ভানুয়াতু
২১৯ সামোয়া
২২০ সেন্ট হেলেনা
তথ্যসূত্র: চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন (সিএনএইচসি) ও অন্যান্য।
করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]