অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগে বগুড়ায় কনস্টেবল ক্লোজড

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৯:৩১ পিএম, ২৯ জুলাই ২০২১
ফাইল ছবি

বগুড়ার শেরপুরে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগে পারভেজ হোসেন নামের পুলিশের এক কনস্টেবলকে লাঞ্ছিত করেছে স্থানীয় জনতা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে।

বুধবার (২৮ জুলাই) রাতে শেরপুর পৌর শহরের গোসাইপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) তাকে বগুড়া পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত (ক্লোজড) করা হয়।

এলাকাবাসীর ভাষ্যমতে, বেসরকারি একটি এনজিও কর্মকর্তা তার স্ত্রীকে নিয়ে পৌর শহরের গোসাইপাড়ার একটি বহুতল ভবনে ভাড়া থাকতেন। চাকরির কারণে ওই এনজিও কর্মকর্তা বাইরে থাকেন। এ সুযোগে তার স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন কনস্টেবল পারভেজ হোসেন।

দুই মাস ধরে তাদের মধ্যে অনৈতিক সম্পর্ক চলছে। এরই সূত্র ধরে বুধবার রাতে ওই নারীর সঙ্গে দেখা করতে তাদের ভাড়া বাসায় যান তিনি। একপর্যায়ে স্থানীয়রা বিষয়টি জানতে পেরে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখেন এবং মারধর করেন। খবর পেয়ে শেরপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই কনস্টেবলকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

অভিযোগ অস্বীকার করেন কনস্টেবল পারভেজ হোসেন। তিনি বলেন, কোনো পরকীয়া সম্পর্কে নয়, স্থানীয় একজন লন্ড্রি মালিকের সঙ্গে দাওয়াত খেতে তিনি ওই বাসায় গিয়েছিলেন। ওই নারীর সঙ্গে কোনো অনৈতিক সম্পর্ক নেই বলেও দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, দুই মাস আগে পুলিশ কনস্টেবল পারভেজ অস্থায়ীভাবে থানায় নিয়মিত ডিউটি পালনের জন্য এসেছিলেন। তাকে ঘিরে একটি অনৈতিক ঘটনার অভিযোগ ও তাকে অবরুদ্ধ থাকার ঘটনাটি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়। পরবর্তীতে তাকে বগুড়া পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়েছে বলে স্বীকার করেন তিনি।

এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]