বরগুনায় স্ত্রী হত্যায় স্বামীর যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বরগুনা
প্রকাশিত: ০৮:৩৮ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০২১
ফাইল ছবি

বরগুনায় ঘুমন্ত স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও দুই লাখ টাকা অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক হাফিজুর রহমান এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন না।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম মোস্তফা গাজী (৪০)। তিনি বরগুনার তালতলী উপজেলার বড় আমখোলা গ্রামের মোতাহার গাজীর ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, নয় বছর আগে বরগুনা সদর উপজেলার জাকিরতবক গ্রামের মোতাহার বিশ্বাসের মেয়ে মোর্শেদা বেগমের সঙ্গে মোস্তফা গাজীর বিয়ে হয়। এর কিছুদিন পর থেকে মোস্তফা গাজী দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে আসছিলেন। টাকা দিতে না পারায় শারীরিকভাবে নির্যাতন করতেন মোস্তফা গাজী।

২০১৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রাত ১১টার দিকে মোর্শেদাকে ঘুমন্ত অবস্থায় বুকে-মুখে আঘাত করে পরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় গৃহবধূর বাবা মোতাহার বিশ্বাস বাদী হয়ে তালতলী থানায় হত্যা মামলা করেন।

মামলার বাদী মোতাহার বিশ্বাস বলেন, আমার মেয়ে এর আগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে যৌতুক দাবির মামলা করেছিলো। সে মামলায় আপসের শর্তে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি জামিনে গিয়ে ফের দুই লাখ টাকা দাবি করে। টাকা দিতে না পারায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় হত্যা করে।

এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি মোস্তাফিজুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, এ হত্যাকাণ্ডটি অন্যান্য হত্যাকাণ্ডের মত নয়। একবার যৌতুক চেয়ে নির্যাতন করেছে। আপসে জামিনে গিয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় ফাঁস লাগিয়ে ঠাণ্ডা মাথায় হত্যা কর করা হয়।

আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]