ভোটের ৮ দিন পর কেন্দ্রের ছাদে মিললো সিল মারা ব্যালট!

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৬:০৫ পিএম, ২০ নভেম্বর ২০২১

টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে নির্বাচনের আটদিন পর একটি বিদ্যালয়ের ছাদে সিল মারা ৫২৭ ব্যালট পেপার পাওয়া গেছে।

শনিবার (২০ নভেম্বর) সকালে উপজেলার ডুবাইল ইউনিয়নের সেহরাতৈল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদ থেকে সিল মারা তালগাছ প্রতীকের ৫২৭ ব্যালট উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, গত ১১ নভেম্বর ডুবাইল ইউনিয়নে দ্বিতীয় ধাপে ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩নং সংরক্ষিত ওয়ার্ডে তালগাছ প্রতীকের নারী সদস্য পদের প্রার্থী বিউটি আক্তার ৩০০ ভোটের ব্যবধানে হেরে যান। নির্বাচনের আটদিন পর সকালে এ ইউনিয়নের সেহরাতৈল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদে শিশু শিক্ষার্থীরা খেলতে গিয়ে ব্যালট পেপারগুলো দেখতে পায়। তারা বিষয়টি শিক্ষকদের জানায়। পরে শিক্ষকরা স্থানীয়দের অবগত করলে বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এরপর তালগাছ প্রতীকের প্রার্থী বিউটি আক্তার ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। এ সময় ব্যালট পেপার দেখে বিউটি আক্তার কান্নায় ভেঙে পড়েন।

তালগাছ প্রতীকের প্রার্থী বিউটি আক্তার বলেন, ‘নির্বাচনে আমাকে ৩০০ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত দেখানো হয়েছে। নির্বাচনের আটদিন পর নিজ কেন্দ্রের বিদ্যালয়ের ছাদে তালগাছ প্রতীকের সিল মারা ৫২৭ ব্যালট পেপার পাওয়া গেছে। এ ব্যালটগুলো একত্রিত করলে আমি দুই শতাধিক ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হতাম। নির্বাচনে ফেল করাতে সংশ্লিষ্টরা ষড়যন্ত্র করেছে। বিষয়টি নিয়ে মামলা করবো।

ভোটের ৮ দিন পর কেন্দ্রের ছাদে মিললো সিল মারা ব্যালট!

দেলদুয়ার উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল বাতেন বলেন, বিষয়টি জানা নেই। কেউ অভিযোগও করেনি। এ ঘটনায় কিছু করাও নেই।

দেলদুয়ার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা আক্তারের মুঠোফোনে বারবার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

আরিফ উর রহমান টগর/এএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]