স্বামী চেয়ারম্যান প্রার্থী, প্রতিদ্বন্দ্বী দুই স্ত্রী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পাবনা
প্রকাশিত: ০৯:৫১ এএম, ২৬ নভেম্বর ২০২১

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় নৌকা প্রতীক পেয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার আধাঘণ্টা পর দুই স্ত্রী স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দেন দুলাল মাস্টার।

এর কিছুক্ষণ পর দুলাল মাস্টারের প্রথম স্ত্রী ফেরদৌসী বেগম ও দ্বিতীয় স্ত্রী নাসিমা খাতুন স্বতন্ত্রপদে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

স্থানীয়রা জানান, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নুরু-উন-নবী মণ্ডল দুলাল স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। বয়স অনুযায়ী তার চাকরি আছে আরও ১২ বছর। শুধু চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করার জন্য তিনি ছয় মাস আগে চাকরি থেকে স্বেচ্ছায় অবসর নিয়েছেন। তফসিল ঘোষণার পর তিনি ও তার দুই স্ত্রী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়ার জন্য চেষ্টা চালান। অবশেষে গত রোববার (২১ নভেম্বর) আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক পান। বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) তিনি দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এর আধাঘণ্টা পর দুই স্ত্রীও একযোগে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

jagonews24

স্থানীয়রা আরও জানান, এলাকায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী নুরু-উন-নবী মণ্ডলের জনপ্রিয়তা রয়েছে। তিনি চাকরি ছেড়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন। তবে দলীয় মনোনয়ন ও কাগজপত্র যাচাই-বাছাই নিয়ে তিনি সংশয়ে রয়েছেন। তাই তিনি নিজে ও দুই স্ত্রীকে দিয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করিয়ে রেখেছিলেন। তিনি নির্বাচন করতে না পারলে বিকল্প হিসেবে কোনো একজন স্ত্রীকে দিয়ে নির্বাচন করাবেন। তবে স্ত্রীদের দু’জনেরই মনোনয়ন দাখিলে বিষয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নুরু-উন-নবী মণ্ডল ওরফে দুলাল মাস্টার বলেন, বিশেষ কিছু কারণে দুই স্ত্রীসহ তিনি নিজে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। কোনো কারণে কারো মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে যাতে পরিবারের কেউ নির্বাচন করতে পারেন সেজন্য তিনি বিকল্প ব্যবস্থা নিয়েছেন।

পাবনা জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার মাহবুবুর রহমান জানান, পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার চারটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ছিল। চেয়ারম্যান পদে ১৬ প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এছাড়া সংরক্ষিত নারী আসনে ৪৩ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ১৩৩ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

উল্লেখ্য, আগামী ২৯ নভেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাই হবে। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৬ ডিসেম্বর। ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৩ ডিসেম্বর।

আমিন ইসলাম জুয়েল/আরএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]