শ্বশুর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়, জামাই বিদ্রোহী হয়ে চেয়ারম্যান

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পাবনা
প্রকাশিত: ০৩:৩৩ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০২১
ছবিতে আবদুল খালেক মালিথা (বামে) ও এমলাক হোসেন বাবু

তৃতীয় ধাপে গতকাল রোববার (২৮ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার দুটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন শ্বশুর ও জামাই।

এর মধ্যে শ্বশুর আবদুল খালেক মালিথা মুলাডুলি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আর জামাই এমলাক হোসেন বাবু সাহাপুর ইউপিতে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

পাবনা জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার মাহবুবুর রহমান জাগো নিউজকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, আবদুল খালেক মালিথা মুলাডুলি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। তিনি আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে ভোটে লড়েন। অন্যদিকে একই উপজেলার সাহাপুর ইউপিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে জয় পান এমলাক হোসেন বাবু। তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হন।

মোটরসাইকেল প্রতীকে বাবু পান ১৩ হাজার ৪৪ ভোট এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকার প্রার্থী আকাল সরদার পান ১০ হাজার ৯৯৩ ভোট।

এদিকে জেলায় জামাই-শ্বশুরের ব্যতিক্রমী বিজয় নিয়ে বেশ আলোচনা চলছে।

আমিন ইসলাম জুয়েল/এমকেআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]