সিগারেটের আগুনে তেলের পাম্পে বিস্ফোরণ, প্রাণ গেলো কর্মচারীর

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পাবনা
প্রকাশিত: ০৭:২৫ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০২১

পাবনা সদর উপজেলায় তেলের পাম্পে বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়ে মতিউর রহমান (২১) নামে এক কর্মচারীর মৃত্যু হয়েছে।

রোববার (২৮ নভেম্বর) রাতে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

মৃত মতিউর রহমান পাবনা সদর উপজেলার নাজিরপুর খন্দকারপাড়ার গোলজার হোসেনের ছেলে। তিনি বেশ কয়েক বছর ধরে ওই পাম্পে কাজ করতেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ২৪ নভেম্বর বেলা ১১টার দিকে উপজেলা হেমায়েতপুর ইউনিয়নের জাহাঙ্গীর আলম ওরফে আলম হাজীর তেল পাম্পে হঠাৎ আগুন ধরে বিস্ফোরণ ঘটে। বিকট শব্দে কেঁপে ওঠে পুরো এলাকা। আগুনে পাম্পের তিন কর্মচারী দগ্ধ হন। তাদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে রেফার করেন। তাদের সেখানে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজনের মৃত্যু হয়।

তেলের পাম্পের মালিক জাহাঙ্গীর আলম ওরফে আলম হাজী বলেন, ঘটনার দিন একটি ট্রাক তেল দিচ্ছিলেন মতিউর। পাশে ছিলেন আরও দুজন কর্মচারী। ওই ট্রাকের ওপরে বসে একজন ধূমপান করছিলেন। ওই ব্যক্তি জ্বলন্ত সিগারেটের শেষাংশ নিচে ছুড়ে ফেলেন। এতে তাৎক্ষণিক আগুন ধরে পাম্পে বিস্ফোরণ ঘটে। সেখানে থাকা তিনজন কর্মচারী দগ্ধ হন। তাদের উদ্ধার করে দ্রুত পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ঢাকায় নেওয়া হয়।

আহতদের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করছেন বলেও জানান জাহাঙ্গীর আলম।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মাসুদ আলম ঘটনার সতত্যা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, বিস্ফোরণে ঘটনায় কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আমিন ইসলাম জুয়েল/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]