নির্মাণাধীন শহীদ মিনার ভাঙচুর, গ্রেফতার ৪

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চাঁপাইনবাবগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৬:০১ এএম, ০৪ অক্টোবর ২০২২

চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিদিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নির্মাণাধীন শহীদ মিনার ভাঙচুরের ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (৩ অক্টোবর) সকালে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে গত শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে জেলা শহরের ১২৩ নম্বর বিদিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতাররা হলেন- তারেক রহমান (৩১), নয়ন আলী (১৯), আব্দুল কাইয়ুম (২০) ও নূর মোহাম্মদ। তাদের মধ্যে নূর মোহাম্মদ এসএসসি পরীক্ষার্থী ও নবাবগঞ্জ টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্র।

স্থানীয়রা জানান, বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোশারফ হোসেন ও পাশের গ্রামের এমএম আইডিয়াল স্কুলের শিক্ষক পান্নার মধ্যে বিরোধের জের ধরে শহীদ মিনারে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে। বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে সরকারি অর্থায়নে নির্মাণাধীন শহীদ মিনারের লাল বৃত্তের টাইলসের কিছু অংশ ও মেঝের বিভিন্ন অংশ ভাঙচুর করা হয়। এ নিয়ে সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন ওই বিদ্যলয়ের প্রধান শিক্ষক মোসা. মেহেরুন্নেসা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মেহেরুন্নেসা জানান, সভাপতির সঙ্গে শত্রুতার জের ধরে অন্য একটি বিদ্যালয়ের শিক্ষক পান্নার পরিকল্পনায় স্থানীয় কয়েকজন এই ভাঙচুর করেন। শনিবার সকালে জানতে পারি শহীদ মিনার ভাঙচুর করা হয়েছে।

সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুরুন-নাহার রুবিনা বলেন, খবর পেয়ে রোববার সকালে সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ভাঙচুর করা কাজ পুনরায় সম্পন্ন করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ.কে.এম আলমগীর জাহান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, প্রধান শিক্ষকের দায়ের করা মামলার ভিত্তিতে আসামিদের গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে সোমবার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যেমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সোহান মাহমুদ/এমএইচআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।