নারায়ণগঞ্জে বিএনপি নেতাদের বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৭:২০ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০২২

নারায়ণগঞ্জে পুলিশের ওপর ককটেল বিস্ফোরণের অভিযোগে বিএনপির নেতাকর্মীদের আসামি করে মামলা করা হয়েছে। মামলায় চারজনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কাজী ফেরদৌস বাদী হয়ে মামলাটি করেন। মামলায় ১৪ জনের নাম উল্লেখ ও ৭০-৮০ জনকে অজ্ঞাতপরিচয় আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, তথ্য ছিল শহরের মিশনপাড়া এলাকায় হোসিয়ারি সমিতির পশ্চিম পাশের রাস্তায় নাশকতার উদ্দেশ্যে বিএনপি নেতাকর্মীরা গোপন বৈঠক করছেন। সোমবার (২৮ নভেম্বর) দিনগত রাত ১২টার দিকে পুলিশ সেখানে যায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ককটেল ছুড়তে থাকেন বিএনপি নেতাকর্মীরা। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ আট রাউন্ড গুলি ছোড়ে।

এ সময় বিএনপি নেতা আহমেদুল হাসান, হাসান আহেম্মদ ইকবাল, খোকন সাহা ও সাখাওয়াত হোসেন জ্যাকিকে গ্রেফতার করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে বিস্ফোরিত ককটেলের অংশ, চারটি লোহার রড ও আটটি কাঠের তক্তা উদ্ধার করে পুলিশ।

মামলার বাকি আসামিরা হলেন-কালা ফারুক, মহানগর যুবদলের সদস্য সচিব মনিরুল ইসলাম সজল, মহানগর যুবদল নেতা রাফিউদ্দিন রিয়াদ, বিএনপি নেতা ফারুক আহম্মেদ, আনোয়ার মাতব্বর, আব্দুল হামিদ ভাষানী, যুবদল নেতা জুলহাস, আনোয়ার, নূরে হামিদ হৃদয় ও পিচ্চি মাসুম।

মামলার অন্যতম আসামি ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী ফোরামের নেতা আব্দুল হামিদ ভাষানী জাগো নিউজকে বলেন, ‘এটি একটি মিথ্যা মামলা। মামলায় যে ঘটনা উল্লেখ করা হয়েছে সেটা গায়েবি। নারায়ণগঞ্জে এরকম কোনো ঘটনা ঘটেনি। এরআগেও বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে এধরনের মামলা করা হয়েছে।’

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (‘এ’ সার্কেল) মোহাম্মদ নাজমুল হাসান জাগো নিউজকে বলেন, একটি বিস্ফোরক মামলা করা হয়েছে। এ ঘটনায় যারা জড়িত ছিলেন তাদের আসামি করা হয়েছে।

মোবাশ্বির শ্রাবণ/এসআর/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।