ট্যুরিজম ফেয়ার : ইউএস-বাংলার অফারে ব্যাপক সাড়া

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৫০ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০১৯

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) থেকে শুরু হয়েছে বিমান বাংলাদেশ ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম ফেয়ার। এবারের মেলায় সবচেয়ে আকর্ষণীয় ছাড়ের অফার দিয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় এয়ারলাইন্স ইউএস-বাংলা। মেলা উপলক্ষে রুটভেদে ১০ থেকে ২৫ শতাংশ ছাড়ের অফার দিচ্ছে এয়ারলাইন্সটি।

লোভনীয় এ অফারে ব্যাপক সাড়া মিলেছে। ইউএস-বাংলার স্টলে উৎসুক দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। একজন বিক্রয়কর্মীর কাছে মেলার অর্জন সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি জানান, প্রথমদিন থেকেই জমজমাট পর্যটন মেলা।

তিনি বলেন, ‘ইউএস-বাংলার স্টলে এবারের মেলার সবচেয়ে বড় আকর্ষণ ঢাকা-ব্যাংকক রুটে ২৫ শতাংশ ছাড়। এছাড়া ঢাকা-কুয়ালালামপুর রুটে দেয়া হয়েছে ১৫ শতাংশ ছাড়। সিঙ্গাপুর-গোয়াংজু ও কলকাতা রুটে ছাড় দেয়া হয়েছে ১০ শতাংশ। পাশাপাশি দেশের সকল অভ্যন্তরীণ রুটে ১০ শতাংশ ছাড়ের অফার দিয়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স।’

মেলার মাঠে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের স্টলের সামনে কথা হয় তানজিনা আজমের সঙ্গে। তিনি জানান, অনেক সময় নিয়ে মেলায় ঘুরেছেন, সব কিছু দেখেছেন। তার মতে, ইউএস-বাংলার অফারই ছিল আকর্ষণীয়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে উদ্বোধনের পর থেকে শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত মেলায় দর্শনার্থীদের ভিড় ছিল অভাবনীয়। মেলার আয়োজক ট্যুরিজম অপারেটরস অব বাংলাদেশ (টোয়াব)। ২০০৭ সাল থেকে প্রতিবছর পর্যটন মেলার আয়োজন করে আসছে টোয়াব।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মেলার উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মেলা ঘুরে দেখেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী। সঙ্গে ছিলেন বিমান পর্যটনখাতের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

রাষ্ট্রপতির উদ্বোধনের পরপরই দর্শনার্থীদের জন্য মেলা উন্মুক্ত করে দিলে দর্শনার্থীদের ঢল নামে।

মেলায় ‘বৌদ্ধপ্রধান অঞ্চলে ভ্রমণ ব্যবস্থা’ এবং ‘ঢাকার হাজার বছরের ইতিহাস ও ঐতিহ্য’ শীর্ষক দুটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে আজ শুক্রবার ও আগামীকাল শনিবার। মেলার দ্বিতীয় দিনে রয়েছে টোয়াবের সদস্য এবং বিদেশি প্রদর্শকদের অংশগ্রহণে অধিবেশন। ১৪০ জন বিদেশি পর্যটক এবারের মেলায় অংশ নিয়েছেন। ভারত, নেপাল, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, ফিলিপাইনসহ অন্যান্য দেশের জাতীয় পর্যটন সংস্থা, উজবেকিস্তানসহ দেশ-বিদেশের ট্যুর অপারেটর, ট্রাভেল অপারেটর, বিমান সংস্থা, হোটেল এবং রিসোর্টসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ২২০টি স্টল রয়েছে।

মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। প্রবেশমূল্য ৩০ টাকা।

আরএম/এসআর/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :