আলহাজ টেক্সটাইলের পর্ষদ পুনর্গঠন, তদারকিতে বিশেষ কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:০৯ এএম, ২১ জানুয়ারি ২০২১

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ‘জেড’ গ্রুপের প্রতিষ্ঠান আলহাজ টেক্সটাইল মিলসের পর্ষদ পুনর্গঠনের পাশাপাশি কোম্পানিটির তদারকির জন্য বিশেষ কমিটি গঠন করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

বুধবার বিএসইসি থেকে এ সংক্রান্ত চিঠি আলহাজ টেক্সটাইলে পাঠানো হয়েছে। এই চিঠিতে সই করেছেন বিএসইসির সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম।

পর্ষদ পুনর্গঠনের অংশ হিসেবে আলহাজ টেক্সটাইলে তিনজন স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ দিয়েছে বিএসইসি। এই তিন পরিচালকেরা হলেন- বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সাবেক অতিরিক্ত সচিব মো. শফিকুল ইসলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের অধ্যাপক ড. কেএম সালাউদ্দিন ও আইবিএ’র সহযোগী অধ্যাপক মিলিতা মেহজাবিন।

এর আগে গত ১ সেপ্টেম্বর জারি করা এক নির্দেশনায় বিএসইসি জানায়, ‘জেড’ গ্রুপে থাকায় ৪৫ কার্যদিবসের মধ্যে কোম্পানির পর্ষদ পুনর্গঠন করা হবে। এই পুনর্গঠনে বিদ্যমান শেয়ারহোল্ডাররা পরিচালক হওয়ার যোগ্য হবেন এবং কমিশন এক বা একাধিক স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ দেবে।

এদিকে পর্ষদ পুনর্গঠন করে কোম্পানির সার্বিক তদারকির জন্য তিন সদস্যের বিশেষ কমিটি গঠন করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। এ কমিটির সদস্যরা হলেন- বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক সাইফুর রহমান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সাবেক অতিরিক্ত সচিব মো. শফিকুল ইসলাম (স্বতন্ত্র পরিচালক হিসেবে নিয়োগ পাওয়া) এবং ডিএসইর একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা।

পর্ষদ পুনর্গঠন নিয়ে আলহাজ্ব টেক্সটাইলকে পাঠানো চিঠিতে বিএসইসি উল্লেখ করেছে, আলহাজ টেক্সটাইল ২০১৯ সালের ২৯ ডিসেম্বর ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে নেমেছে। এরপরে কোম্পানিটির কোন উন্নতি হয়নি। এছাড়া কোম্পানির উদ্যোক্তা/পরিচালকেরা মাত্র ১২ দশমিক ৭৮ শতাংশ শেয়ার ধারণের মাধ্যমে বিএসইসির সর্বনিম্ন ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণের নির্দেশনা ভঙ্গ করেছে।

অথচ কোম্পানিটিতে ৮৭ দশমিক ২২ শতাংশ শেয়ার ধারণ করেও সাধারণ শেয়ারহোল্ডাররা গত দুই অর্থবছর ধরে কোনো লভ্যাংশ পাচ্ছে না। যা বিনিয়োগকারীদের জন্য ক্ষতিকারক ও কমিশনের কাছে অপ্রত্যাশিত।

এরইমধ্যে একজন পরিচালক ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর থেকে ২০১৯ সালে ৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শেয়ার উচ্চ দরে (১০০ টাকার ওপরে) বিক্রি করেছে। যা ঘোষণা ছাড়াই বিক্রির মাধ্যমে সুবিধাভোগী ব্যবসা নিষিদ্ধকরণ বিধিমালা ভঙ্গ করা হয়েছে। এসব বিবেচনায় আলহাজ টেক্সটাইল মিলসের চলমান দুরবস্থা কাটিয়ে তোলার জন্য কমিশন কোম্পানিটির পর্ষদ পুনর্গঠন ও কমিটি গঠন করলো।

এমএএস/এসজে

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]