টানা চার কার্যদিবস উত্থানে ডিএসইর সূচক বাড়লো ২৭৪ পয়েন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২৯ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার (৬ ডিসেম্বর) প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচকের সামান্য উত্থান হয়েছে। তবে অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্যসূচকের পতন হয়েছে।

দুই বাজারে সূচকের দু'রকম চিত্র হলেও উভয় বাজারে লেনদেনে অংশ নেওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। তবে, কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন শুরু হয় বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার মাধ্যমে। ফলে লেনদেনের প্রথম মিনিটেই ডিএসইর প্রধান সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে যায়। তবে, কয়েক মিনিটের মধ্যেই বড় মূলধনের বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম কমে যায়। এতে ঋণাত্মক হয়ে পড়ে সূচক। সূচক ঋণাত্মক থেকেই লেনদেনের প্রথমঘণ্টা পার করে শেয়ারবাজার।

প্রথম ঘণ্টার লেনদেনে সূচক ঋণাত্মক থাকলেও শেষদিকে সূচক ঊর্ধ্বমুখী হয়। বিশেষ করে লেনদেনের শেষ দুইঘণ্টা বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার প্রবণতা অব্যাহত থাকে। তবে বড় মূলধনের বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম কমার ধারা অব্যাহত থাকে। এতে প্রায় দ্বিগুণ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার পরও সূচকের বড় উত্থান হয়নি। দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১২ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৯৭৮ পয়েন্টে উঠে এসেছে। এর মাধ্যমে টানা চার কার্যদিবসের উত্থানে ডিএসইর প্রধান সূচক বাড়লো ২৭৪ পয়েন্ট।

অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ ৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৪৬৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ৬৩৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

দিনভার ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ২১৮ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১১৮টির। আর ৩৫টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৮৮৭ কোটি ১৩ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৮৯৪ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ৭ কোটি ৮৫ লাখ টাকা।

টাকার অংকে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। কোম্পানিটির ৭৯ কোটি ৮৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা জেনেক্স ইনফোসিসের ৩১ কোটি ৬৭ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ২৯ কোটি ৯০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের।

এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ দশ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- সেনা কল্যাণ ইন্স্যুরেন্স, ওয়ান ব্যাংক, ম্যাক্সন স্পিনিং, সোনালী পেপার, ফরচুন সুজ, ওরিয়ন ফার্মা এবং আইএফআইসি ব্যাংক।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই কমেছে ১৩ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৩৫ কোটি ২০ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেওয়া ২৭০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৪৮টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৯৩টির এবং ২৯টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এমএএস/এমএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]