সবচেয়ে জোরে ঢেকুর তুলে বিশ্বরেকর্ড!

ফিচার ডেস্ক
ফিচার ডেস্ক ফিচার ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৩৩ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১

সবচেয়ে জোরে ঢেকুর তুলে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন অস্ট্রেলিয়ার এক ব্যক্তি। ১০ বছরের বেশি সময়ের গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন তিনি। বহু বছর ধরেই নেভিলি শার্প দাবি করেছিলেন যে, তার তোলা ঢেকুরই নাকি বিশ্বে সবচেয়ে লাউড।

অর্থাৎ জোরে শোনা যায়। অস্ট্রেলিয়ার ডারউইনের বাসিন্দা নেভিলি। ১২ বছর আগে এই রেকর্ড গড়ে ফেলেছিলেন ব্রিটেনের পল হুন। ১০৯.৯ ডেসিবেল ছিল তার ঢেকুরের আওয়াজের জোর। তার রেকর্ড কোনোভাবেই ভাঙা যাচ্ছিল না।

অবশেষে সফল হয়েছেন নেভিলি। ১১২.৪ ডেসিবেলের ঢেকুর তুলে পুরোনো রেকর্ড ভেঙে নতুন গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

চলতি বছর জুলাই মাসে নেভিলি শার্প এই রেকর্ড গড়েছেন। বিশ্বরেকর্ড গড়ে নেভিলি দারুণ খুশি। নেভিলির কথায়, বিশ্বরেকর্ড গড়ার নেশা তো ছিলোই, একই সঙ্গে একজন ব্রিটিশ ১০ বছরের বেশি সময় ধরে এই রেকর্ডের অধিকারী ছিলেন। সেটা ভাঙতে চেয়েছিলেন তিনি।

তবে শুরুতে ঢেকুরের আওয়াজের ডেসিবেল সঠিক ভাবে পরিমাপের জন্য যন্ত্র পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে অবশ্য সেই সমস্যার সমধান হয়।

তাই ঢেকুর তোলার এই প্রতিযোগিতার জন্য নিজেকে তৈরি করেছিলেন। এ ব্যাপারে নেভিলিকে সাহায্য করেছেন তার বোন এবং স্ত্রী। বোন তাকে শিখিয়েছিলেন কীভাবে প্রচণ্ড জোরে ঢেকুর তুলতে হয়। আর নেভিলিকে প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন তার স্ত্রী।

মাত্র ৬ বছর বয়সেই নেভিলি তার বড় বোনের কাছ থেকে শিখেছেন কীভাবে খুব জোরে আওয়াজ করে ঢেকুর তুলতে হয়। সেই থেকেই চর্চা। বিয়ের পর নেভিলির স্ত্রী কেপিও তাকে এই ব্যাপারে সাহায্য করেছেন। শেষ পাঁচ বছর ধরে নিজেকে কঠিন নিয়মে রেখে তৈরি করেছেন।

নেভিলির জীবনের একমাত্র লক্ষ্য ছিল ব্রিটেনের পল হুনের রেকর্ড ভাঙা। ছোট থেকেই বিশ্ব রেকর্ড গড়ার স্বপ্ন দেখতেন নেভিলি। অবশেষে ৫০ এর কোঠা পার করে এলো সাফল্য।

নেভিলির স্ত্রী জানিয়েছেন, তার প্রতিবেশীরাও তাদের এই যাত্রায় সাহায্য করেছেন। পাশে থেকেছেন সবসময়।

সূত্র: গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড

কেএসকে/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]ail.com