আগামী বাজেটে স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ দ্বিগুণ করার সুপারিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪২ পিএম, ১৬ মে ২০২০

করোনাভাইরাসের মহামারির কারণে আগামী বাজেটে স্বাস্থ্যখাতের বরাদ্দ গত বছরের চেয়ে দ্বিগুণ রাখা প্রয়োজন বলে মনে করছেন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সাবেক দুই সভাপতি।

বিএমএর সাবেক সভাপতি অধ্যাপক রশীদ ই মাহবুব ও অধ্যাপক মাহমুদ হাসানের পক্ষে গণমাধ্যমে পঠানো এক বিবৃতিতে আসন্ন বাজেটে স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ দ্বিগুণ করাসহ বেশকিছু সুপারিশ করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, স্বাধীনতার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদ্যোগে ও পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় বাংলাদেশের স্বাস্থ্যব্যবস্থার অবকাঠামোতে প্রভূত উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। প্রতি ছয় হাজার মানুষের জন্য একটি করে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করে স্বাস্থ্যব্যবস্থার ভৌগোলিক সম্প্রসারণ করা হয়েছে, যা উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে অনন্য।

জনস্বাস্থ্যের সূচকসমূহ যেমন- শিশু ও মাতৃমৃত্যুর হার হ্রাস, শিশুদের টীকা প্রদান, নাগরিকদের গড় আয়ু বৃদ্ধি, যক্ষ্মা, কুষ্ঠ, কালাজ্বর ইত্যাদি রোগ নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর চেয়ে এগিয়ে আছে। কিন্তু চিকিৎসাসেবার দুর্বল মান, আধুনিক চিকিৎসাব্যবস্থার অপ্রতুলতা, চিকিৎসার উচ্চব্যয়- এসব কারণে জনমনে অসন্তুষ্টি রয়েছে এবং উন্নত স্বাস্থ্যসেবার সুযোগ জনগণ পাচ্ছে না।

এতে বলা হয়, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশে স্বাস্থ্যসেবার মাথাপিছু ব্যয় ও মাথাপিছু ‘জিডিপি বরাদ্দ’ সর্বনিম্ন। বিগত দশকের জিডিপিতে স্বাস্থ্যসেবায় ব্যয় ও আনুপাতিক ব্যয় উল্লেখযোগ্য হারে বাড়েনি। বাস্তবে সময়ের সাথে সাথে স্বাস্থ্যসেবার ব্যয় বাড়ছে; বিশেষত বৈশ্বিক মহামারির কারণে এটি এখন অনেক বাড়ানো দরকার। এ বছরও বাজেটে স্বাস্থ্যসেবায় মাথাপিছু ব্যয় ও মাথাপিছু জিডিপি বরাদ্দ সর্বনিম্ন। বিগত দশকেও জিডিপিতে আমাদের স্বাস্থ্যখাতের আনুপাতিক বরাদ্দ উল্লেখযোগ্য ছিল না।

সময়ের সাথে সাথে স্বাস্থ্যসেবা খাতে নাগরিকদের নিজস্ব ব্যয়ও অনেক বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশেষত চলমান মহামারির কারণে জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা খাতের বরাদ্দ অনেক বাড়ানো দরকার। এ বছর বাজেটে স্বাস্থ্যব্যয় বরাদ্দ অন্তত গত বছরের দ্বিগুণ রাখা প্রয়োজন। অন্যদিকে শুধু ব্যয় বৃদ্ধিই যথেষ্ট নয়- অব্যবস্থা, অপচয় ও দুর্নীতি দূর করে অর্থের সঠিক ব্যবহারও নিশ্চিত করতে হবে। এ জন্য সরকারি কাঠামোর বাইরে নজরদারির বিশেষ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। মহামারি নিরোধ, সংক্রামকব্যাধি নিয়ন্ত্রণ- এসবের জন্য আধুনিক জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনার সম্প্রসারণ করতে হবে। দেশের মোট জনসংখ্যার ৭০ শতাংশের বেশি মানুষের জন্য এখনও সরকারি স্বাস্থ্যসেবাই প্রধান ভরসাস্থল; এর পরিধি ও মান উন্নয়ন করা দরকার।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সরকারি স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানগুলোর জনবল ও সরঞ্জাম বাড়াতে হবে। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সক্ষমতা বাড়ানো ও নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা করতে হবে। স্বাস্থ্যব্যবস্থার অবকাঠামোর আমূল পরিবর্তন করে উন্নত দেশগুলোর আদলে গড়ে তোলা দরকার। চিকিৎসাশিক্ষার নিম্নমান উন্নয়নের জন্য শিক্ষা, শিক্ষাসামগ্রী ও অবকাঠামো বাড়াতে হবে এবং নিরপেক্ষ নজরদারির ব্যবস্থা করতে হবে। চিকিৎসক ছাড়াও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী যেমন সেবিকা, প্রযুক্তিবিদদের সংখ্যা ও সক্ষমতা বৃদ্ধির উদ্যোগ নিতে হবে। নতুন আবিস্কৃত প্রযুক্তি ও কলাকৌশলে দক্ষতা অর্জনের জন্য চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্যকর্মীদের নিয়মিত উন্নত দেশে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে। আমরা আগামী বাজেটে এসব সমস্যার জরুরি সমাধান নিশ্চিত রাখার দাবি জানাচ্ছি।

এমইউএইচ/বিএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাস - লাইভ আপডেট

৬৭,৩৪,৪১৭
আক্রান্ত

৩,৯৩,৭৫২
মৃত

৩২,৭৩,১৯১
সুস্থ

# দেশ আক্রান্ত মৃত সুস্থ
বাংলাদেশ ৬০,৩৯১ ৮১১ ১২,৮০৪
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯,২৪,৫৯১ ১,১০,২১০ ৭,১২,৪৩৬
ব্রাজিল ৬,১৮,৫৫৪ ৩৪,০৭২ ২,৭৪,৯৯৭
রাশিয়া ৪,৪৯,৮৩৪ ৫,৫২৮ ২,১২,৬৮০
স্পেন ২,৮৭,৭৪০ ২৮,৭৫২ ১,৯৬,৯৫৮
যুক্তরাজ্য ২,৮১,৬৬১ ৩৯,৯০৪ ৩৪৪
ইতালি ২,৩৪,০১৩ ৩৩,৬৮৯ ১,৬১,৮৯৫
ভারত ২,২৭,২৭৩ ৬,৩৬৭ ১,০৯,৪৬২
ফ্রান্স ১,৮৯,২২০ ২৯,০৬৫ ৬৯,৯৭৬
১০ জার্মানি ১,৮৪,৯২৩ ৮,৭৩৬ ১,৬৮,৫০০
১১ পেরু ১,৮৩,১৯৮ ৫,০৩১ ৭৬,২২৮
১২ তুরস্ক ১,৬৭,৪১০ ৪,৬৩০ ১,৩১,৭৭৮
১৩ ইরান ১,৬৭,১৫৬ ৮,১৩৪ ১,২৯,৭৪১
১৪ চিলি ১,১৮,২৯২ ১,৩৫৬ ৯৫,৬৩১
১৫ মেক্সিকো ১,০৫,৬৮০ ১২,৫৪৫ ৭৫,৪৪৮
১৬ সৌদি আরব ৯৫,৭৪৮ ৬৪২ ৭০,৬১৬
১৭ কানাডা ৯৩,৭২৬ ৭,৬৩৭ ৫১,৭৩৯
১৮ পাকিস্তান ৮৯,২৪৯ ১,৮৩৮ ৩১,১৯৮
১৯ চীন ৮৩,০২৭ ৪,৬৩৪ ৭৮,৩২৭
২০ কাতার ৬৫,৪৯৫ ৪৯ ৪০,৯৩৫
২১ বেলজিয়াম ৫৮,৯০৭ ৯,৫৬৬ ১৬,১১২
২২ নেদারল্যান্ডস ৪৭,১৫২ ৬,০০৫ ২৫০
২৩ বেলারুশ ৪৬,৮৬৮ ২৫৯ ২২,০৬৬
২৪ সুইডেন ৪১,৮৮৩ ৪,৫৬২ ৪,৯৭১
২৫ ইকুয়েডর ৪০,৯৬৬ ৩,৪৮৬ ২০,০১৯
২৬ দক্ষিণ আফ্রিকা ৪০,৭৯২ ৮৪৮ ২১,৩১১
২৭ সিঙ্গাপুর ৩৭,১৮৩ ২৪ ২৩,৯০৪
২৮ সংযুক্ত আরব আমিরাত ৩৭,০১৮ ২৭৩ ১৯,৫৭২
২৯ কলম্বিয়া ৩৫,১২০ ১,০৮৭ ১২,৯২১
৩০ পর্তুগাল ৩৩,৯৬৯ ১,৪৬৫ ২০,৫২৬
৩১ সুইজারল্যান্ড ৩০,৯৩৬ ১,৯২১ ২৮,৬০০
৩২ কুয়েত ৩০,৬৪৪ ২৪৪ ১৮,২৭৭
৩৩ মিসর ২৯,৭৬৭ ১,১২৬ ৭,৭৫৬
৩৪ ইন্দোনেশিয়া ২৯,৫২১ ১,৭৭০ ৯,৪৪৩
৩৫ ইউক্রেন ২৫,৯৬৪ ৭৬২ ১১,৩৭২
৩৬ পোল্যান্ড ২৫,১৭৭ ১,১২৭ ১২,৪১০
৩৭ আয়ারল্যান্ড ২৫,১৪২ ১,৬৬৪ ২২,৬৯৮
৩৮ ফিলিপাইন ২০,৬২৬ ৯৮৭ ৪,৩৩০
৩৯ আর্জেন্টিনা ২০,১৯৭ ৬০৮ ৫,৯৯৩
৪০ রোমানিয়া ২০,১০৩ ১,৩০৮ ১৪,১৪৫
৪১ আফগানিস্তান ১৮,৯৬৯ ৩০৯ ১,৭৬২
৪২ ডোমিনিকান আইল্যান্ড ১৮,৩১৯ ৫২০ ১১,৪৭৪
৪৩ ইসরায়েল ১৭,৫৬২ ২৯১ ১৫,০২৬
৪৪ জাপান ১৭,০১৮ ৯০৩ ১৪,৮৬৭
৪৫ অস্ট্রিয়া ১৬,৮৪৩ ৬৭২ ১৫,৭৪২
৪৬ ওমান ১৫,০৮৬ ৭২ ৩,৪৫১
৪৭ পানামা ১৫,০৪৪ ৩৬৩ ৯,৬১৯
৪৮ বাহরাইন ১৩,৭৩৩ ২২ ৮,৪৭১
৪৯ কাজাখস্তান ১২,৩১২ ৪৮৯ ৬,৬৯৬
৫০ বলিভিয়া ১২,২৪৫ ৪১৫ ১,৬৫৮
৫১ ডেনমার্ক ১১,৮৭৫ ৫৮৬ ১০,৬৫৩
৫২ আর্মেনিয়া ১১,৮১৭ ১৮৩ ৩,৫১৩
৫৩ দক্ষিণ কোরিয়া ১১,৬৬৮ ২৭৩ ১০,৫০৬
৫৪ সার্বিয়া ১১,৫৭১ ২৪৬ ৬,৯১০
৫৫ নাইজেরিয়া ১১,৫১৬ ৩২৩ ৩,৫৩৫
৫৬ আলজেরিয়া ৯,৮৩১ ৬৮১ ৬,২৯৭
৫৭ চেক প্রজাতন্ত্র ৯,৪৯৪ ৩২৬ ৬,৮০৯
৫৮ মলদোভা ৯,০১৮ ৩১৭ ৫,২৪০
৫৯ ঘানা ৮,৮৮৫ ৩৮ ৩,১৮৯
৬০ ইরাক ৮,৮৪০ ২৭১ ৪,৩৩৮
৬১ নরওয়ে ৮,৫০৪ ২৩৮ ৮,১৩৮
৬২ মালয়েশিয়া ৮,২৬৬ ১১৬ ৬,৬১০
৬৩ মরক্কো ৮,০৩০ ২০৮ ৭,২১৫
৬৪ ক্যামেরুন ৭,৩৯২ ২০৫ ৪,৫৭৫
৬৫ অস্ট্রেলিয়া ৭,২৫১ ১০৩ ৬,৬৮৩
৬৬ ফিনল্যাণ্ড ৬,৯৪১ ৩২২ ৫,৮০০
৬৭ আজারবাইজান ৬,৫২২ ৭৮ ৩,৭৩৭
৬৮ গুয়াতেমালা ৬,১৫৪ ১৫৮ ৯৭৯
৬৯ হন্ডুরাস ৫,৮৮০ ২৪৩ ৬৪৮
৭০ সুদান ৫,৭১৪ ৩৩৩ ১,৮২৫
৭১ তাজিকিস্তান ৪,২৮৯ ৪৮ ২,৪০১
৭২ সেনেগাল ৪,১৫৫ ৪৫ ২,২৭৬
৭৩ জিবুতি ৪,০৫৪ ২৬ ১,৬৮৫
৭৪ লুক্সেমবার্গ ৪,০২৭ ১১০ ৩,৮৭৪
৭৫ গিনি ৩,৯৯১ ২৩ ২,৫১২
৭৬ উজবেকিস্তান ৩,৯৮৭ ১৬ ৩,২২৭
৭৭ হাঙ্গেরি ৩,৯৭০ ৫৪২ ২,২৪৫
৭৮ ড্যানিশ রিফিউজি কাউন্সিল ৩,৭৬৪ ৮১ ৫১২
৭৯ আইভরি কোস্ট ৩,২৬২ ৩৫ ১,৫৮৪
৮০ থাইল্যান্ড ৩,১০২ ৫৮ ২,৯৭১
৮১ গ্যাবন ২,৯৫৫ ২১ ৮১৮
৮২ গ্রীস ২,৯৫২ ১৮০ ১,৩৭৪
৮৩ নেপাল ২,৯১২ ১১ ৩৩৩
৮৪ এল সালভাদর ২,৮৪৯ ৫৩ ১,২৪৯
৮৫ হাইতি ২,৬৪০ ৫০ ২৯
৮৬ বুলগেরিয়া ২,৬২৭ ১৫৯ ১,৩৯০
৮৭ উত্তর ম্যাসেডোনিয়া ২,৬১১ ১৪৭ ১,৬২১
৮৮ বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা ২,৬০৬ ১৫৯ ১,৯৬৮
৮৯ কেনিয়া ২,৪৭৪ ৭৯ ৬৪৩
৯০ ক্রোয়েশিয়া ২,২৪৭ ১০৩ ২,১১৩
৯১ সোমালিয়া ২,২০৪ ৭৯ ৪১৮
৯২ কিউবা ২,১১৯ ৮৩ ১,৮৩৯
৯৩ ভেনেজুয়েলা ২,০৮৭ ২০ ৩৩৪
৯৪ মায়োত্তে ২,০৫৮ ২৫ ১,৫২৩
৯৫ কিরগিজস্তান ১,৯৩৬ ২২ ১,৩৪০
৯৬ এস্তোনিয়া ১,৯১০ ৬৯ ১,৬৬৭
৯৭ মালদ্বীপ ১,৮৭২ ৬৪৮
৯৮ আইসল্যান্ড ১,৮০৬ ১০ ১,৭৯৪
৯৯ ইথিওপিয়া ১,৮০৫ ১৯ ২৬২
১০০ শ্রীলংকা ১,৮০০ ১১ ৮৫৮
১০১ লিথুনিয়া ১,৬৯৪ ৭১ ১,৩০২
১০২ স্লোভাকিয়া ১,৫২৬ ২৮ ১,৩৭৯
১০৩ নিউজিল্যান্ড ১,৫০৪ ২২ ১,৪৮১
১০৪ স্লোভেনিয়া ১,৪৭৯ ১০৯ ১,৩৫৯
১০৫ মালি ১,৪৬১ ৮৫ ৮০৬
১০৬ গিনি বিসাউ ১,৩৩৯ ৫৩
১০৭ লেবানন ১,৩১২ ২৮ ৭৬৮
১০৮ ইকোয়েটরিয়াল গিনি ১,৩০৬ ১২ ২০০
১০৯ সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক ১,২৮৮ ২৩
১১০ আলবেনিয়া ১,২১২ ৩৩ ৯১০
১১১ কোস্টারিকা ১,১৯৪ ১০ ৬৮৭
১১২ নিকারাগুয়া ১,১১৮ ৪৬ ৩৭০
১১৩ হংকং ১,১০৩ ১,০৪৫
১১৪ জাম্বিয়া ১,০৮৯ ৯১২
১১৫ তিউনিশিয়া ১,০৮৭ ৪৯ ৯৬৯
১১৬ প্যারাগুয়ে ১,০৮৬ ১১ ৫১১
১১৭ লাটভিয়া ১,০৮৫ ২৫ ৭৮১
১১৮ দক্ষিণ সুদান ৯৯৪ ১০
১১৯ মাদাগাস্কার ৯৭৫ ২০১
১২০ নাইজার ৯৬৩ ৬৫ ৮৬০
১২১ সাইপ্রাস ৯৫৮ ১৭ ৮০৭
১২২ সিয়েরা লিওন ৯১৪ ৪৭ ৪৯১
১২৩ উরুগুয়ে ৮৮৭ ২৩ ৭০৯
১২৪ বুর্কিনা ফাঁসো ৮৮৫ ৫৩ ৭৬০
১২৫ এনডোরা ৮৫২ ৫১ ৭৩৮
১২৬ চাদ ৮২৮ ৬৬ ৬৩৩
১২৭ জর্জিয়া ৮০৫ ১৩ ৬৫০
১২৮ মৌরিতানিয়া ৭৮৪ ৩৯ ৬৫
১২৯ জর্ডান ৭৬৫ ৫৮৬
১৩০ ডায়মন্ড প্রিন্সেস (প্রমোদ তরী) ৭১২ ১৩ ৬৫১
১৩১ সান ম্যারিনো ৬৭৮ ৪২ ৪০৮
১৩২ মালটা ৬২৫ ৫৮৩
১৩৩ কঙ্গো ৬১১ ২০ ১৭৯
১৩৪ জ্যামাইকা ৫৯১ ১০ ৩৬৮
১৩৫ ফ্রেঞ্চ গায়ানা ৫৮৯ ৩২১
১৩৬ ফিলিস্তিন ৫৭৭ ৩৭৭
১৩৭ চ্যানেল আইল্যান্ড ৫৬১ ৪৬ ৫২৮
১৩৮ উগান্ডা ৫৫৭ ৮২
১৩৯ তানজানিয়া ৫০৯ ২১ ১৮৩
১৪০ কেপ ভার্দে ৫০২ ২৩৯
১৪১ রিইউনিয়ন ৪৭৯ ৪১১
১৪২ টোগো ৪৬৫ ১৩ ২৩৯
১৪৩ ইয়েমেন ৪৫৩ ১০৩ ১৭
১৪৪ তাইওয়ান ৪৪৩ ৪২৯
১৪৫ রুয়ান্ডা ৪১০ ২৮০
১৪৬ মালাউই ৩৯৩ ৫১
১৪৭ মোজাম্বিক ৩৫২ ১১৪
১৪৮ বেনিন ৩৩৯ ১৫১
১৪৯ আইল অফ ম্যান ৩৩৬ ২৪ ৩১২
১৫০ মরিশাস ৩৩৫ ১০ ৩২২
১৫১ লাইবেরিয়া ৩৩৪ ৩০ ১৭৬
১৫২ ভিয়েতনাম ৩২৮ ৩০৭
১৫৩ মন্টিনিগ্রো ৩২৪ ৩১৫
১৫৪ ইসওয়াতিনি ৩০০ ২০১
১৫৫ জিম্বাবুয়ে ২৩৭ ৩১
১৫৬ মায়ানমার ২৩৬ ১৪৮
১৫৭ লিবিয়া ২০৯ ৫২
১৫৮ মার্টিনিক ২০০ ১৪ ৯৮
১৫৯ মঙ্গোলিয়া ১৯১ ৭০
১৬০ ফারে আইল্যান্ড ১৮৭ ১৮৭
১৬১ জিব্রাল্টার ১৭৪ ১৫৩
১৬২ গুয়াদেলৌপ ১৬২ ১৪ ১৩৮
১৬৩ কেম্যান আইল্যান্ড ১৬০ ৮৫
১৬৪ গায়ানা ১৫৩ ১২ ৭৭
১৬৫ ব্রুনাই ১৪১ ১৩৮
১৬৬ বারমুডা ১৪১ ১১৩
১৬৭ কমোরস ১৩২ ৫৫
১৬৮ কম্বোডিয়া ১২৫ ১২৩
১৬৯ সিরিয়া ১২৪ ৫৩
১৭০ ত্রিনিদাদ ও টোবাগো ১১৭ ১০৮
১৭১ বাহামা ১০২ ১১ ৫৫
১৭২ আরুবা ১০১ ৯৮
১৭৩ মোনাকো ৯৯ ৯২
১৭৪ বার্বাডোস ৯২ ৮১
১৭৫ অ্যাঙ্গোলা ৮৬ ১৮
১৭৬ লিচেনস্টেইন ৮২ ৫৫
১৭৭ সুরিনাম ৮২
১৭৮ সিন্ট মার্টেন ৭৭ ১৫ ৬১
১৭৯ বুরুন্ডি ৬৩ ৩৩
১৮০ ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়া ৬০ ৬০
১৮১ ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ ৫৪
১৮২ ভুটান ৪৮ ১১
১৮৩ ম্যাকাও ৪৫ ৪৫
১৮৪ সেন্ট মার্টিন ৪১ ৩৩
১৮৫ বতসোয়ানা ৪০ ২৩
১৮৬ ইরিত্রিয়া ৩৯ ৩৯
১৮৭ অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ২৬ ২০
১৮৮ সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইন আইল্যান্ড ২৬ ১৫
১৮৯ গাম্বিয়া ২৬ ২০
১৯০ নামিবিয়া ২৫ ১৬
১৯১ পূর্ব তিমুর ২৪ ২৪
১৯২ গ্রেনাডা ২৩ ১৮
১৯৩ কিউরাসাও ২১ ১৫
১৯৪ নিউ ক্যালেডোনিয়া ২০ ১৮
১৯৫ সেন্ট লুসিয়া ১৯ ১৮
১৯৬ লাওস ১৯ ১৮
১৯৭ ডোমিনিকা ১৮ ১৬
১৯৮ ফিজি ১৮ ১৮
১৯৯ বেলিজ ১৮ ১৬
২০০ সেন্ট কিটস ও নেভিস ১৫ ১৫
২০১ গ্রীনল্যাণ্ড ১৩ ১৩
২০২ ফকল্যান্ড আইল্যান্ড ১৩ ১৩
২০৩ ভ্যাটিকান সিটি ১২
২০৪ টার্কস্ ও কেইকোস আইল্যান্ড ১২ ১১
২০৫ সিসিলি ১১ ১১
২০৬ মন্টসেরাট ১১ ১০
২০৭ জান্ডাম (জাহাজ)
২০৮ পশ্চিম সাহারা
২০৯ পাপুয়া নিউ গিনি
২১০ ক্যারিবিয়ান নেদারল্যান্ডস
২১১ সেন্ট বারথেলিমি
২১২ লেসোথো
২১৩ এ্যাঙ্গুইলা
২১৪ সেন্ট পিয়ের এন্ড মিকেলন
তথ্যসূত্র: চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন (সিএনএইচসি) ও অন্যান্য।