বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশি কর্মীর সীমা ৪০ শতাংশ করল সৌদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:২৮ পিএম, ০৮ জুলাই ২০২১

এখন থেকে সৌদি আরবের বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বা স্থাপনাগুলোতে বাংলাদেশি কর্মী থাকতে পারবে মোট জনবলের সর্বোচ্চ ৪০ শতাংশ। ভারতীয় কর্মীদের জন্যেও একই সীমা নির্ধারণ করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। সৌদি আরবের মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ কিওয়া অনলাইন পোর্টাল এই সীমা নির্দিষ্ট করে দিয়েছে। বুধবার এক প্রতিবেদনে বিশ্বস্ত সূত্রের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে সৌদি গ্যাজেট।

জানা গেছে, কিওয়া পোর্টাল থেকে ইমেইলের মাধ্যমে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানকে বিদেশি কর্মীদের সীমার বিষয়ে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। তারই একটি কপি হাতে পায় সৌদি সংবাদমাধ্যমটি।

ওই ইমেইলে বলা হয়েছে, কোনো প্রতিষ্ঠান বা স্থাপনায় ভারতীয় কর্মীর সংখ্যা মোট জনবলের ৪০ শতাংশের বেশি হতে পারবে না। একই সীমা বাংলাদেশি কর্মীদের জন্যেও। এক্ষেত্রে ইয়েমেনিদের জন্য সর্বোচ্চ সীমা ২৫ শতাংশ এবং ইথিওপিয়ানদের জন্য মাত্র এক শতাংশ রাখা হয়েছে।

jagonews24

কিন্তু যেসব প্রতিষ্ঠানে এখনই নির্দিষ্ট দেশের জন্য নির্ধারিত সীমার বেশি বিদেশি কর্মী রয়েছে, তাদের কী হবে?

এ বিষয়ে কিওয়া নিশ্চিত করেছে, কোনো প্রতিষ্ঠান/স্থাপনায় নির্দিষ্ট দেশের জন্য নির্ধারিত সীমার বেশি কর্মী থাকলে ওই প্রতিষ্ঠান/স্থাপনাগুলো পুরোনো কর্মীদের কাজ ও বসবাসের অনুমতি নবায়ন করতে পারবে। তবে সেই একই জাতীয়তার বাড়তি কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ থাকবে।

আগের নিয়মে, কোনো প্রতিষ্ঠান বা স্থাপনায় কোনো দেশের কর্মী-সীমা পেরিয়ে গেলে সেসব প্রতিষ্ঠান/স্থাপনার মালিকেরা নতুন কর্মীর জন্য ভিসা ইস্যু বা স্থানান্তর পরিষেবা দিতে পারতেন না। এই বিধিনিষেধ তুলে নিতে তারা সৌদি সরকারের কাছে সম্প্রতি আবেদন জানিয়েছিলেন। এর পরিপ্রেক্ষিতেই নতুন নিয়ম চালু করল দেশটি।

কেএএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]