ডিএসসিসির ১৮ ওয়ার্ডেও নির্বাচন স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:১৩ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০১:১৪ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) পর এবার ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে (ডিএসসিসি) নতুন সংযোজিত ১৮টি ওয়ার্ডের নির্বাচনের তফসিলও স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে এ নির্বাচন তফসিল কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব, প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ সংশ্লিষ্টদেরকে আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এক রিট আবেদনের শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি এম. ফারুকের (মো. ফারুক) সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট কামরুল হক সিদ্দিকী এবং তার সঙ্গে ছিলেন পার্থ সারথী মন্ডল। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আমাতুল করিম।

গতকাল বুধবার আদালতে রিট আবেদনটি দায়ের করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ভোটার মোজাম্মেল হোসেন মিয়া। ওই রিটের শুনানি নিয়ে আদালত এ আদেশ দেন। হাইকোর্টের এ রায়ের ফলে ডিএসসিসির সংরক্ষিত মহিলা আসনের ৬ প্রার্থীর নির্বাচনী কার্যক্রমও স্থগিত হয়ে গেছে বলে জানান আইনজীবীরা।

এর আগে গতকাল বুধবার (১৭ জানুয়ারি) ডিএনসিসির উপ-নির্বাচনের তফসিল এবং সার্কুলারের ওপর স্থগিতাদেশ দিয়ে রুল জারি করেন বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি জাফর আহমেদের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

উল্লেখ্য, গত ৯ জানুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে মেয়রের শূন্য পদে উপ-নির্বাচন ও ডিএসসিসিতে নতুন যুক্ত হওয়া ১৮টি ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর পদে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

কমিশনের ঘোষিত ওই তফসিলের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করেন ডিএনসিসিতে নতুন ওয়ার্ড হিসেবে যুক্ত হওয়া ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান ও বেরাইদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম।

এফএইচ/আরএস/আরআইপি