EN
  1. Home/
  2. জাতীয়

৯৯৯-এ গৃহকর্মী নির্যাতনের খবর, উদ্ধার করল পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ০৪:২৯ পিএম, ০৩ নভেম্বর ২০২০

রাজধানীর গুলশান নর্দা মোড়লবাড়ি এলাকা থেকে গুরুতর জখম অবস্থায় এক শিশু গৃহকর্মীকে (৮) উদ্ধার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।

প্রত্যক্ষদর্শী এক নারী ৯৯৯ এ ফোন করার পর ওই শিশু গৃহকর্মীকে উদ্ধারসহ গৃহকর্তা ও গৃহকর্ত্রীকে গ্রেফতার করে গুলশান থানা পুলিশ। গুলশান থানার ওসি আবুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গুলশান থানা পুলিশ জানায়, সোমবার রাতে রাষ্ট্রীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করে কেউ একজন শিশু গৃহকর্মী নির্যাতনের খবর দেন। রাতেই পুলিশ তাকে উদ্ধার করে।

ওসি আবুল হাসান বলেন, ওই শিশুর বাসার গৃহকর্ত্রী সুরমা আক্তার ও গৃহকর্তা মঈনুল হোসাইনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বাড়ি মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে।

শিশু গৃহকর্মীকে পুলিশি ব্যবস্থায় প্রথমে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয় তেজগাঁওয়ে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে। শিশুটির মুখমণ্ডলে জখমের চিহ্ন আছে। আঘাতে চোখ ফুলে গেছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বেলাল হোসেন জানান, তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) রেখে চিকিৎসা দেয়া হবে। প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন, শিশুটির গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জে। তার বাবা মারা গেছেন। মায়ের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে।

গৃহকর্মী নির্যাতনের ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী এক প্রতিবেশী তরুণ জাগো নিউজকে জানান, প্রায় রাতেই অফিস শেষে বাসায় ফিরলে কান্নার শব্দ পেতাম। খোঁজ নিয়ে জানতে পারি ওই গৃহকর্মীকে মারধর করা হয়। গত রাতে খুব বেশি কান্না ও আর্তনাতের শব্দ পাই। পরে স্থানীয়রা ভিড় করে। পাশের আরেক ফ্ল্যাটের এক নারী ৯৯৯ এ ফোন করে জানালে পুলিশ এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে।

জেইউ/এএইচ/এমকেএইচ