হাজারীবাগে গৃহবধূর মুখে এসিড নিক্ষেপ

ঢামেক প্রতিবেদক
ঢামেক প্রতিবেদক ঢামেক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:০৪ পিএম, ০২ এপ্রিল ২০১৮

রাজধানীর হাজারীবাগের বালুর মাঠ এলাকায় আকলিমা থাতুন (২৮) নামে এক গৃহবধূর মুখে এসিড নিক্ষেপ করেছে অজ্ঞাত পরিচয়ে এক তরুণ (২০)। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

স্বজনরা জানিয়েছেন সোমবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে হাজারীবাগের শাহজাহান মার্কেটের সামনের গলি দিয়ে আকলিমা মেয়ে আদিবা জান্নাতকে (৫) স্কুলে নিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় হঠাৎ এক তরুণ প্লাস্টিকের মগে করে আনা এসিড তার মুখে নিক্ষেপ করে। এতে তার মুখের ডান পাশ ও গলাসহ বুকের একপাশ ঝলসে গেছে।

ঢামেক বার্ন ইউনিটের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আকলিমার শরীরের প্রায় ৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। তার বুকের ডান পাশ ও মুখ মণ্ডল ঝলসে গেছে।

আকলিমার স্বামী জোবায়ের জাগো নিউজকে বলেন, তিনি পেশায় ডেকোরেটর শ্রমিক। দীর্ঘদিন ধরে ওই এলাকায় ভাড়া বাসায় স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে থাকেন। তাদের এক ছেলে এক মেয়ে। ছোট সন্তানের নাম জোবাইর ফেরদৌস।

তিনি বলেন, ‘যে ছেলেটা এসিড মেরেছে তাকে আমরা চিনতে পারিনি। তবে ঘটনার পর আমার স্ত্রী বলেছে ওই সময় সে দেলোয়ারের স্ত্রী সুমিকে সেখান থেকে দ্রুত চলে যেতে দেখেছে। এরপর সে অজ্ঞান হয়ে পড়ে, আর কিছু বলতে পারেনি’।

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের বিয়ে হয়েছে প্রায় ৯ বছর। এতোদিন কোনো সমস্যা হয়নি। বিয়ের আগে দেলোয়ার নামে (৩৫) আমার স্ত্রীর এক আত্মীয় তাকে পছন্দ করতো। আমাদের বিয়ের পর দেলোয়ার সুমি নামে একটা মেয়েকে বিয়ে করে। কিন্তু গত দেড় বছর ধরে তারা (দেলোয়ার-সুমি) প্রায়ই ঝগড়া করে আমাদেরকে দোষ দিতো। তাদের ঝগড়ার কারণ আমরা জানি না’।

এ বিষয়ে হাজারীবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মুজিবর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমরা খবর পেয়ে তদন্ত করছি; এখনও মামলা হয়নি। আকলিমার স্বামী জানিয়েছেন মামলার প্রস্তুতি চলছে’।

এইএইচ/এমএমজেড/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :