পাসপোর্ট করে দেয়ার নামে লাখ টাকাও নিতেন তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২৩ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২০

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পাসপোর্ট অফিসে অভিযান চালিয়ে আট দালালকে আটকের পর বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। র‍্যাব-২ এর এসপি (সিপিসি ৩) শাহাব উদ্দিনের নেতৃত্বে অভিযানটি পরিচালিত হয়। সোমবার দুপুর থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালিত হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‍্যাব-২ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মাসুদ খান (৪৫), মোহসিন মিয়া (২৮), জসিম কাজি (২৯) ও হেমায়েত হোসেন (৩০)। তাদের তিন মাসের এবং নুরুন্নবী (৪০) ও তৌহিদুল ইসলামকে (৩৪) দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়াও বাবুল হাওলাদার ও নেয়ামত শেখকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে পাসপোর্ট গ্রাহকদের বিপুল পরিমাণ ডকুমেন্ট জব্দ করা হয়েছে।

র‍্যাব-২ এর এসপি (সিপিসি ৩) শাহাব উদ্দিন মঙ্গলবার দুপুরে জানান, যারা পাসপোর্ট প্রক্রিয়া কম বোঝেন কিংবা দ্রুত পাসপোর্ট দরকার এমন গ্রাহকদের টার্গেট করেন তারা। দ্রুত পাসপোর্ট পাইয়ে দেয়ার নামে দালালরা ২০ হাজার থেকে লাখ টাকা পর্যন্ত নিতেন। আবার অনেকের পাসপোর্ট জটিলতা নিরসনে আরও বেশি টাকা নিয়ে থাকে দালালচক্রটি।

তিনি বলেন, সম্প্রতি এক সেবাগ্রহীতার কাছ থেকে ৭০ হাজার টাকা নিয়ে পাসপোর্ট দেয়নি দালালচক্রটি। আবার টাকাও ফেরত দেয়নি। এ ব্যাপারে অভিযোগ পাওয়ার পর র‍্যাব-২ এর একটি দল অভিযান চালিয়ে আটজন দালালকে আটক করে। তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালত বিভিন্ন মেয়াদে সাজা ও জরিমানা করেছে।

তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পর পাসপোর্ট অফিসকে দুর্নীতি ও দালালমুক্ত করতে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানান এই র‌্যাব কর্মকর্তা।

জেইউ/এনএফ/এমকেএইচ