ডিসিদের মাধ্যমে প্রকল্প তদারকির নির্দেশনা স্থগিত

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩২ এএম, ১১ মে ২০২২

মাঠ পর্যায়ে জেলা প্রশাসকের (ডিসি) অফিসের মাধ্যমে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিভুক্ত (এডিপি) প্রকল্প তদারকির নির্দেশনা সংশ্লিষ্ট চিঠিটি স্থগিত করা হয়েছে।

সম্প্রতি সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেনের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। সভার কার্যবিবরণী থেকে এ তথ্য জানা গেছে। একই সঙ্গে প্রকল্প তদারকির জন্য জেলা প্রশাসকদের আহ্বায়ক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে (উন্নয়ন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) সদস্য সচিব করে বিভিন্ন দপ্তরের তিনজন নির্বাহী প্রকৌশলীকে নিয়ে ৫ সদস্যের আরেকটি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্তও হয় সভায়।

গত ১৮ জানুয়ারি এক চিঠিতে জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) মাঠ পর্যায়ে এডিপিভুক্ত প্রকল্পগুলো অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের (উন্নয়ন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) মাধ্যমে পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়নের নির্দেশনা দেয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

এ নির্দেশনা জারির পর প্রকৌশলীদের সংগঠন জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্রকল্প পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়নের বিষয়ে আপত্তি তোলে। সংবাদ সম্মেলন করে এ নির্দেশনা বাতিল না হলে আন্দোলনেরও হুমকি দিয়ে আসছিলেন প্রকৌশলীরা।

এ প্রেক্ষাপটে প্রকৌশলী, আইএমইডিসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে গত ১৫ মার্চ সভায় বসেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী। তবে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে গঠন করা নতুন কমিটিকেও ভালোভাবে নিচ্ছেন না প্রকৌশলীরা।

নতুন সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (১০ মে) ইনস্টিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের প্রকৌশলীরা বৈঠকে বসেছিলেন। তাদের বৈঠকের সিদ্ধান্ত দু'একদিনের জানিয়ে দেবেন বলে জানা গেছে।

প্রকৌশলীরা জানিয়েছেন, কমিটিতে ডিসি আহ্বায়ক হতে পারেন, তবে সদস্য সচিব রাখতে হবে সংশ্লিষ্ট নির্বাহী প্রকৌশলীকে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত সভায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ'র (আইইবি) সভাপতি প্রকৌশলী মো. নূরুল হুদা বলেন, এত দিন (প্রায় ৫০ বছর) সারাদেশে চলমান প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নকারী সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ মাধ্যমে তদারকি এবং আইএমইডি মাধ্যমে পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন হয়ে আসছে। যে কারণে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জেলা প্রশাসন কর্তৃক প্রকল্প পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন সংক্রান্ত পত্র জারি হওয়ার পর সারাদেশের প্রকৌশলীদের মধ্যে এক ধরনের অসন্তোষ বিরাজ করছে।’

ওই সভায় জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আইএমইডি যেহেতু সরাসরি সব প্রকল্প পরিদর্শন করা সম্ভব হয় না, সেহেতু জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্রকল্প পরিদর্শনের সিদ্ধান্ত সঠিক প্রতীয়মান হয়। তবে প্রকৌশলীদের পেশাজীবী সংগঠন এবং বিভিন্ন প্রকৌশল দপ্তর/অধিদপ্তর এ বিষয়ে আপত্তি উত্থাপন করায় সমন্বয়ের স্বার্থে জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে জেলার প্রকৌশল দপ্তরের কর্মকর্তাদের নিয়ে যৌথ টিম গঠনের মাধ্যমে প্রকল্প পরিদর্শনের বিষয় বিবেচনা করা যায়।’

এরপর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কে এম আলী আজম বলেন, জেলা প্রশাসককে আহ্বায়ক করে জেলার অন্যান্য প্রকৌশল দপ্তরের প্রকৌশলীদের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠন করে প্রকল্প পরিদর্শন করা হলে কমিটির পর্যবেক্ষণের আলোকে আইএমইডি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবে।

আরএমএম/এমএএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]