দুই দিনের মধ্যে ২৩ দলের সিদ্ধান্ত, রোববার ইসিকে চিঠি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১৬ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৮

নির্বাচনে যাওয়া না যাওয়ার ব্যাপারে আগামী দুই দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত নেবে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২৩ দলীয় জোট। শনিবার রাতে রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ২৩ দলের বৈঠক শেষে বেরিয়ে যাওয়ার সময় এ কথা জানান এলডিপির চেয়ারম্যান কর্নেল (অব.) ড. অলি আহমদ বীর বিক্রম।

তিনি বলেন, জোটের প্রধান দল বিএনপি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে কথা বলে নির্বাচনে যাওয়া না যাওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে আগামী দুই দিনের মধ্যে। আমাদের প্রধান দাবি ছিল খালেদা জিয়ার মুক্তি, সেটা এখনও পূরণ হয়নি। বিরোধী নেতাকর্মীদের হয়রানি না করার প্রতিশ্রুতি কাগজে-কলমে রয়ে গেছে। এখনও গ্রেফতার, মামলা অব্যাহত। এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

রোববারের মধ্যে জোটগতভাবে নির্বাচনে যাওয়ার বিষয়টি ইসিকে (নির্বাচন কমিশন) জানাতে হবে, সেক্ষেত্রে ২৩ দল কী করবে- এমন প্রশ্নের জবাবে অলি বলেন, আমরা রোববার চিঠি দেব। সে চিঠির ভাষা হবে এমন, "যদি আমরা নির্বাচনে যাই, তাহলে নিবন্ধিত দলগুলোর প্রতীক হবে নিজ দলের। আর অনিবন্ধিত দলগুলোর প্রতীক হবে বিএনপির প্রতীক।"

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যাওয়া না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে শনিবার সন্ধ্যায় বিএনপির জরুরি বৈঠক হয়। এরপর রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বসেন বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২৩ দলের শীর্ষ নেতারা। রাজধানীর গুলশানে দলটির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই দুই বৈঠক হয়।

বিএনপির জরুরি বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান প্রমুখ।

গত বৃহস্পতিবার রাতে বাংলাদেশ জাতীয় দল, পিপলস পার্টি অব বাংলাদেশ ও মাইনোরিটি জনতা পার্টি বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটে যোগ দেয়।

ওইদিন জোটের বৈঠকের পর সংবাদ ব্রিফিংয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানান, আজকে ২০ দলে সৈয়দ এহসানুল হুদার নেতৃত্বাধীন জাতীয় দল, জননেতা মশিয়ুর রহমান যাদু মিয়ার মেয়ে রিটা রহমানের নেতৃত্বাধীন পিপলস পার্টি অব বাংলাদেশ এবং সুপ্রীতি কুমার মণ্ডলের নেতৃত্বাধীন মাইনোরিটি জনতা পার্টি আনুষ্ঠানিকভাবে ২০ দলের যুক্ত হলেন। ফলে ২০ দল বেড়ে ২৩ দল হলো।

কেএইচ/জেডএ/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :