পোস্টার লাগানোর সময় বাধা দেওয়ার অভিযোগ সাকির

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৩১ পিএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮

পোস্টার লাগানোর সময় কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ করেছেন ঢাকা-১২ আসনে বাম গণতান্ত্রিক জোট সমর্থিত প্রার্থী গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি। তিনি বলেন, গতকাল (সোমবার) রাতে আমাদের কর্মীরা পোস্টার এবং ফেস্টুন লাগাতে গেলে কারওয়ান বাজার ও মগবাজার এলাকায় তাদের ওপর হামলা ও মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এক কর্মীকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হয়েছে।

কোদাল প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় নেমেছেন ঢাকা ১২ আসনে বাম গণতান্ত্রিক জোট সমর্থিত গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি। প্রচারণায় নেমে তিনি এ অভিযোগ করেন।

নিউ ইস্কাটনের নিজ বাসার সামনে থেকে ভয়মুক্ত বাংলাদেশ, কার্যকর গণতন্ত্র, সকলের জন্য উন্নয়ন স্লোগান নিয়ে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১২ আসনে প্রচার-প্রচারণা ও গণসংযোগ শুরু করেন জোনায়েদ সাকি।

হামলার ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সমর্থকদের দিকে ইঙ্গিত করে জোনায়েদ সাকি বলেন, মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আপনি আপনার কর্মীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করুন। আপনার নাম ভাঙ্গিয়ে তারা বলছেন, এটা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এলাকা, এখানে অন্য কারো পোস্ট আর লাগবে না। এ রকম কোনো নির্দেশনা যদি আপনি দিয়ে থাকেন তাহলে নির্বাচন কমিশনকে বলব তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে। আর যদি আপনি নির্দেশ না দিয়ে থাকেন তাহলে যারা আপনার নাম ভাঙ্গিয়ে এসব করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করুন।

নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, পরিষ্কারভাবে দাবি জানাচ্ছি, সকলের জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি করুন। যারা আচরণবিধি লঙ্ঘন করছেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করুন। বাংলাদেশ একটা ভয়মুক্ত পরিবেশ তৈরি করার জন্য আমরা নির্বাচনে যাচ্ছি। বাংলাদেশ কার্যকরী গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য আমরা নির্বাচনে যাচ্ছি।

অভিযোগ করে তিনি বলেন, দেশে একটা প্রবল স্বৈরতান্ত্রিক শাসন চলছে। এ শাসন সারাদেশে একটা ভয়ের আতঙ্ক তৈরি করেছে। মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। অবাধে লুটপাটতন্ত্র চলছে। এসবের ন্যূনতম কোনো জবাবদিহিতা নেই। এ পরিস্থিতিতে জনগণের কাছে আহ্বান জানাই নিজেদের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার করার জন্য আপনারা সোচ্চার হন।

বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন নান্নু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক আহমদ কামাল, শিল্পী অরুপ রাহি, অমল আকাশ প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এএস/আরএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]