‘ড. কামাল শপথ নেয়ার কথা বলেননি’, দাবি গণফোরামের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০৪ পিএম, ০৬ জানুয়ারি ২০১৯

একাদশ জাতীয় নির্বাচনে নির্বাচিত গণফোরামের দুই প্রার্থীর শপথ নেয়ার বিষয়ে ‘ইতিবাচক’ চিন্তার কথা বলেছিলেন গণফোরামের সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন। তবে রোববার সে কথা অস্বীকার করেছে গণফোরাম।

গণফোরামের দাবি, ‘ড. কামাল হোসেন কোনোভাবেই বলেননি গণফোরাম থেকে নির্বাচিতরা সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেবেন।’

রোববার দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসীন মন্টু একথা বলেন। এ ছাড়া ঐক্যফ্রন্টে কোনো ‘অনৈক্য’ নেই বলেও দাবি করেন তিনি।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, ‘গতকাল (শনিবার) বিভিন্ন অনলাইন পোর্টালে এবং আজ কয়েকটি পত্রিকায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ঐক্য নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। শনিবার (৫ জানুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর একটি মিলনায়তনে গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির বর্ধিত সভায় ড. কামাল হোসেনের একটি বক্তব্য নিয়ে ভুল বোঝাবুঝির ভিত্তিতে এই ধরনের একটি মন্তব্য করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘ড. কামাল হোসেন কোনোভাবেই বলেননি যে, গণফোরাম থেকে নির্বাচিতরা সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেবেন। আশা করি, এই প্রশ্নে আর কোনো ভুল বোঝাবুঝি থাকবে না।’

গণফোরাম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই, সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিতদের শপথ গ্রহণ প্রশ্নে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে বিন্দুমাত্র অনৈক্য নেই বরং ৩০ ডিসেম্বরের পর ভোটের অধিকার এবং অন্যান্য গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ে জাতীয় ঐক্য আগের চাইতেও আরও বেশি ঐক্যবদ্ধ আছে, থাকবে। এখানে আমরা আবারও স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের নামে যে প্রহসনটি হয়েছে, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সেদিনই তা প্রত্যাখ্যান করেছে।’

এর আগে শনিবার রাজধানীর শিশুকল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে গণফোরামের বর্ধিত সভা শেষে শপথের বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘সুনির্দিষ্ট আলোচনার মাধ্যমে আমরা সিদ্ধান্ত নেব। আমার নিজের ধারণা, সংসদে যাওয়ার বিষয়ে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। আমরা নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছি ঠিকই কিন্তু আমাদের প্রার্থীরা বিরোধী দল থেকে জয়লাভ করেছেন। এটা তাদের জন্য অনেক বড় অর্জন। যে প্রতিযোগিতার মধ্যদিয়ে তারা নির্বাচনে জয়লাভ করেছেন, এজন্য আমি তাদের অভিনন্দন জানাই। আমি আবারও বলছি, তাদের সংসদ যাওয়ার বিষয়ে আমার চিন্তাধারা ইতিবাচক।’

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্ট সাত আসনে জয় পায়। ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শরিক গণফোরাম জয় পায় দুই আসনে। এর মধ্যে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে সুলতান মনসুর এবং গণফোরামের নিজস্ব প্রতীক উদীয়মান সূর্য নিয়ে মোকাব্বির খান নির্বাচিত হন। এ ছাড়া বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলসহ পাঁচজন ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হন। শনিবারের বক্তব্যে বিএনপির এ পাঁচজনকে রেখেই গণফোরামের দুই সদস্য এমপি হিসেবে শপথ নিচ্ছেন বলে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ড. কামাল।

এআর/এসআর/এমএস/এসজি